মাহে রমজান | রমজানের শুভেচ্ছা ছবি ও সময়সূচী ২০২১

মাহে রমজান | রমজানের শুভেচ্ছা ছবি ও সময়সূচী ২০২১ 


মাহে রমজান ২০২১ সময়সূচী 

ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর সময়সূচী। ঢাকার জন্য।
আপনারা সতর্কতার জন্য আরো ভাল ভাবে জেনে নিবেন।
নিচে ২ টা এপ এর লিংক দিচ্ছি যা অন্যদের থেকে বিশ্বাসযোগ্য ।



রমজানের সময়সূচী
Add caption






অর্থপূর্ণ নামায এই এপে আপনি আপনার স্থান অনুযায়ী নামাযের  সময় দেখতে পারবেন। করাচী কিংবা মক্কার নিয়ম অনুযায়ী আলাদা আলাদা সেটিং এর অপশন আছে । 

ইফতার সেহরি এর সময় এর জন্য অন্যগুলো দেখুন। 
এরপরেও আপনারা আপনাদের স্থানীও মসজিদের সময় দেখে সতর্ক থাকবেন। সামান্য সময়ের  অবহেলার জন্য পুরা একটা রোজা নষ্ট করার মানে হয় না। 

৫ মিনিট আগে খাওয়া বন্ধ করলে ক্ষতি নাই কিন্তু ২ মিনিট পরেও খেতে থাকলে রোজা নষ্টের ভয় আছে। আর ইফতারির জন্য অবশ্য মসজিদের সাইরেন আছেই।


রামাদানে এসব ভুল করবো না—
.
[এক.]
সাহরি খাওয়ার পর ফজরের সলাত আদায় না করে বিছানায় যাওয়া ঠিক নয়। শরীর তখন ক্লান্ত ও অলস থাকে, ফলে কাত হলেই চোখ বুজে আসে। ফজর মিস হওয়ার আশঙ্কা থাকে। বরং এ সময়টা সামান্য হাঁটাচলা করে, ইস্তিগফার পড়ে কাটানো উত্তম।
.
[দুই.]
রামাদানে পুকুরে বা নদীতে সাঁতার কাটা থেকে বিরত থাকা উচিত। অনিচ্ছাসত্ত্বেও যদি পেটে পানি চলে যায়, তবে রোজা নষ্ট হয়ে যাবে। অতএব, সতর্ক থাকা দরকার। তাছাড়া, ফরজ গোসল বা সাধারণ অজুতে গড়গড় করে কুলি করা যাবে না এবং নাকের ভেতর পানি দেওয়ার সময়ও যথাযথ সতর্ক থাকতে হবে, যাতে পানি ভেতরে চলে না যায়।
.
[তিন.]
বিশেষ প্রয়োজন ব্যতীত ইউটিউব সার্ফিং করা থেকে বিরত থাকতে হবে। ভালো কিছু দেখতে গেলেও অনেক আজে বাজে ভিডিওর সাজেশন আসবে। ইচ্ছা না থাকলেও কৌতূহল মেটাতে গিয়ে হয়ত অনেক কিছু দেখা হয়ে যাবে। রোজার মর্যাদা কমবে, অন্তর শক্ত হতে থাকবে এবং মানসিক প্রশান্তি নষ্ট হবে। বলার অপেক্ষা রাখে না—গান শুনা, মুভি/নাটক দেখা থেকে বিরত থাকতে হবে।
.
[চার.]
ফেইসবুক অ্যাপের Watch videos আইকনটি হাইড করে দেওয়া দরকার। কারণ, এই আইকনটি ফিতনার দরজা খুলে দেয়। শুরুটা হয় সাধারণ কোনো ভিডিওতে ক্লিক করে, এরপর মহাসমুদ্রে গিয়ে খাবি খেতে হয়। হরেক রকমের ভিডিও দেখতে দেখতে আধ্যাত্মিকতা হ্রাস পায়; ফলে রোজার মর্যাদা ও মাহাত্ম্য বিনষ্ট হয়।
.
[পাঁচ.]
অনেকেই রোজার দিনগুলো বেশি বেশি ঘুমিয়ে কাটিয়ে দেন। এটা একদমই উচিত নয়। রোজার প্রতিটি দিন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ইমাম ইবনুল জাওযি (রাহ.) বলেন, যদি কবরবাসীরা একটি দিনের জন্য দুনিয়াতে ফিরতে পারতো, তবে তারা রমাদানের কোনো একটি দিন চাইতো। তাই, যথাসম্ভব নেক আমলে সময়গুলো কাজে লাগানো উচিত।
.
[দ্বিতীয় পর্ব আগামীকাল—ইনশাআল্লাহ]
.
#আলোকিত_রামাদান
.
#Tasbeeh

বেশি বেশি কোরান তেলোয়াত করুন। অর্থ পড়ুন এবং এই রমজান কে আপনার জীবনের পিছনের সব রমজানের চেয়ে বেশি উত্তম রমজানে পরিনত করতে চেষ্টা করুন। হতে পারে আগামী রমজান আমি আপনি আর পাবো না ।

➤ দেখতে দেখতে রমাদানের অর্ধেক শেষ হয়ে গেল।আমরা ধীরে ধীরে রমাদানে অভ্যস্ত হয়ে পড়ছি।প্রাথমিক দিকে রমাদান নিয়ে যে উৎসাহ ছিল তার হয়তো অনেকটাই কমে গেছে। 

অনেকের আমলে ভাটা পড়েছে। দেখতে দেখতেই কিন্তু হঠাৎ একদিন রমাদান চলে যাবে। তাই সতর্ক হোন। 

রমাদানের প্রতিটা সেকেন্ড ইম্পর্ট্যান্ট। সর্বোচ্চটুকু নেয়ার চেষ্টা করুন।

 যারা খেই হারিয়ে ফেলেছেন বা এখনো কোন রুটিন করতে পারেননি তারা নিম্নলিখিত কাজগুলো করতে পারেন ইন শা আল্লাহ্ঃ


১. দৈনিক কমপক্ষে এক পারা কুরআন অর্থ সহ পড়ুন। আয়াত আকারে বা পৃষ্ঠা আকারে এক পারাকে নিজের সময়মত ভাগ করে নিলে সুবিধা হয়। আজকাল সবার মোবাইলেই কুরআন আছে। ওযু থাকলে মুসহাফ থেকে না থাকলে মোবাইল থেকে পড়তে পারেন।

২. ইস্তেগফার করুন। হাঁটতে চলতে, উঠতে-বসতে, পড়তে থাকুন "আস্তাগফিরুল্লাহা ওয়া আতুবু ইলাইহি"।

৩. দৈনিক কিছু সদাকা করুন। সেটা হতে পারে কেবল দশ টাকা। রমাদানের যেকোন আমল অনেকগুণ বৃদ্ধি পায়। মাত্র দশ টাকা দান করে আপনি হয়ত ১০০০ টাকা দান করার নেকিও অর্জন করতে পারবেন। মনে রাখবেন আল্লাহর ভান্ডার অফুরন্ত।

৪. গুনাহ্ থেকে দূরে থাকুন। রমাদান মাস, শয়তান আবদ্ধ। গুনাহ করার জন্য দায়ী আপনি নিজেই!
সুতরাং সতর্ক হোন। বাইরে গেলে দৃষ্টির হেফাজত করুন। গিবত, চোগলখুরি, অযথা আলাপ এসব বন্ধ করুন।

৫. ইফতার করান। বিভিন্ন গ্রুপের পক্ষ থেকে ইফতার প্রজেক্ট চলছে। বর্তমান সময়টা অন্যান্য বছরের তুলনায় ভিন্ন। অন্য সময়ের চেয়ে এবার যেহেতু মানুষ বেশি কষ্টে পড়ে গেছে সে অনুপাতে সওয়াব ও বেশি হবে ইন শা আল্লাহ্। একজন রোজাদারকে কেবল একটা খেজুর দিয়ে ইফতার করালেও তার রোজার সম্পূর্ণ সওয়াব আপনি পাচ্ছেন।

৬. সাপ্তাহিক নিজের একটা এসেসমেন্ট করতে পারেন। গত এক সপ্তাহে কতটুকু এগিয়েছেন সেটা দেখার জন্য। আমলের ঘাটতি হলে প্রচেষ্টা আরো বাড়ান।

৭. সাহরি খাওয়ার আগে অন্তত চার রাকাত(ভাল হয় আট রাকাত পারলে) তাহাজ্জুদের সালাত আদায় করুন।

৮. ইফতারের ৫ মিনিট আগে সামনে ইফতারি নিয়ে হাত তুলে দুআ করুন। মজলুমদের আপনার দুআয় ভুলবেন না। মহামারি থেকে যেন আল্লাহ্ সকল মুসলিমদের হিফাজত করেন তার জন্য দুয়া করুন।

৯. ইফতারি তৈরিতে যথাসাধ্য সাহায্য করুন।

১০. দৈনিক কিছু দাওয়াহর কাজ করুন। সেটা হতে পারে আপনার বন্ধুকে ছোট একটা ভিডিও ক্লিপ দেয়া, সবাইকে নিয়ে দুই চারটা হাদিস পড়া, পরিচিতদের আমলের ব্যাপারে সতর্ক করা, হারাম কাজে বাঁধা দেয়া, ভাল কোনো পোস্ট শেয়ারেয়া ইত্যাদি।

আল্লাহ্ তা'লা আমাদের আমল করার তৌফিক দান করুন।
Shafayat Hossen Limon

আরো পড়ুন ঃ 

মাহে রমজানের শুভেচ্ছা 


চাঁদ দেখার উপর নির্ভর করে তারিখ পরিবর্তন হতে পারে।
এবং নিম্নের সময় সূচি পাকিস্তানের হামারি ওয়েব থেকে নেওয়া তাই বাংলাদেশের সাথে সেহরি ইফতারির সময়ে স্বাভাবিক ভাবে কিছুটা পরিবর্তন আসবে। সবচেয়ে উত্তম হবে স্থানীয় ক্যালেন্ডার 
দেখে রোজার সময় ঠিক করা ( ঘুম থেকে উঠা, ইফতারি, সেহরি ইত্যাদি)


(আপডেটঃ সময় মুছে দেওয়া হয়েছে )
Powered by Blogger.