বাগান নিয়ে যা যা জানা দরকার | ফুলের বাগানের পিকচার ও গোলাপ ফুলের বাগানের ছবি

বাগান। গোলাপ ফুলের বাগান এবং ফুলের বাগানের পিকচার ফটো নিউ

বাগান করার শখ কার হয় না? ছতবেলায় বাগানের শখ হয়নি বা এমনি এমনি একটা দুইটা গাছ কিনে বাগান করার চেষ্টা করেনি এমন মানুষ কম ই পাওয়া যাবে মনে হয়।
বাগান করতে চাইলে বাগান হয়ে বসে থাকবে না তাই না?
চলুন আজকে জানি বাগান করার কিছু প্রয়োজনীয় কথা সাথে থাকবে ফুলের বাগানের পিকচার বা ছবি

ছাদে বাগান করতে যা যা লাগবে

ধারন ক্ষমতা ঃ
 আপনার ছাদে বাগান করার আগে জেনে নিতে হবে ছাদের ধারন ক্ষমতা কত টুকু।
অনেকেই এটাকে হেলা ফেলা মনে করে কিন্তু লং টার্মে আপনার ছাদের ক্ষতির কারন হতে পারে অপরিকল্পিত বাগান।
তাই কেমন বাগান করবেন, কেমন জায়গা, ওজন ইত্যাদি বিষয় ভালো ভাবে বুঝে তারপর বাগানের দিকে আগান।

বাগানের পিকচার। ছবি ঃ  
রোদ ঃ 
গাছের জন্য রোদ অপরিহার্য এটা বলার অপেক্ষা রাখেনা। একেক রকম গাছের রোদের প্রয়োজন একেক রকম। কোন কোন গাছ অল্প রোদে জন্মে আবার কোন কোন গাছ এর জন্য বেশি রোদ এর প্রয়োজন হয়।
ছাদে কোন পাশে কতক্ষন রোদ থাকে এটা হিসাব  করে ঠিক করুন কেমন গাছের বাগান করবেন।

বাতাস ঃ 
ছাদে সব সময় বাতাস থাকবে এটা স্বাভাবিক। অতিরিক্ত বাতাসের ফলে মাটির আদ্রতা কমে জেতে পারে যা গাছের জন্য ভালো হবে না। তাছাড়া বেশি জোরে বাতাস হলে গাছ নুয়ে পড়তে পারে এটাও আপনার বাগানের জন্য খারাপ।
তাই বেশি বাতাস সামলাতে বেড়া দিতে পারেন।

মিডিয়া ১০১ - বাগানের জন্য মাটি তৈরি

গার্ডেনিং এর শুরুর দিনগুলোতে যখন প্ল্যান্ট কেয়ার ভিডিও দেখতাম আমি সয়েল মিক্স এবং ফার্টিলাইজার পার্টটা স্কিপ করতাম! (এখনো করি অবশ্য 😁) আমার কাছে কেন জানি এসব খুব কমপ্লিকেটেড লাগত! প্রয়োজনীয় এডেটিভসও তখন পাওয়া যেত না কাছাকাছি নার্সারিগুলোতে। সুতরাং যে মাটিতে নার্সারি থেকে গাছ আনতাম সে মাটিতেই গাছ থাকত। নার্সারি থেকে কিনে আনা মাটিতে বাকী কাজ চলে যেত (এদিক থেকে আমি অবশ্য লাকী ছিলাম, লোকাল নার্সারিতে পাওয়া মাটিটা এভারেজে ভাল ছিল বেশ!)

তারপর হুট করেই এক্সপেরিমেন্টালি মাটিতে কোকোপিট মেশানো স্টার্ট করলাম, কোন রেশিও নেই, যতখানি মিশাতে ভাল লাগত, ততখানি দিতাম! হঠাৎ করেই দেখলাম গার্ডেনিং আগের চেয়ে সহজ হয়ে গেছে! আমি এম্নিতেই আন্ডারওয়াটারার, সুতরাং কোকোপিট পেয়ে আমার ওয়াটারিং শিডিউল আরেকটু সহজ হল। এরপর একসময় সেই মাটিতেই চারকোল আর স্টোন চিপ্স এড করা শুরু করলাম! এয়ারেশনের জন্য ড্রেনেজ সিস্টেম ভাল হয়ে গেল কয়েকগুন! লাস্টলি এড করলাম কোকো চিপ্স! অনেকগুলো হয়া প্রোপাগেশন বসিয়েছিলাম এই মিক্সে, এক সপ্তাহের মধ্যে সবগুলাতে কমপ্লিট রুট সিস্টেম ডেভেলপ করে গেল! তবে সবচেয়ে সুবিধা হচ্ছে রিপটিং এর টাইমে, ডেনসিটি লুজ বলে সহজে রিপট করা যায়। যাই হোক এত প্যাঁচালের মুল উদ্দেশ্য আমার মত যারা কমপ্লিকেটেড জিনিসের ভয়ে নিজে সয়েল মিক্স অর মিডিয়া বানাচ্ছেন না তাদেরকে অভয় দেয়া এবং যথাসাধ্য সাহায্য করা!

মিডিয়া বানানোর মুল বেসিক হল একে যথেষ্ট এয়ারি এবং ওয়েল ড্রেইনিং রাখা৷ নার্সারিতে পাওয়া বেশির ভাগ মাটি একটু হেভি, ডিরেক্ট এটাতে গাছ লাগালে গাছ মরে যাবে তা না তবে আপনার এবং গাছের জীবন সহজ করতে এতে আরো কিছু জিনিসপত্র এড করা বেটার, এদের এডিটিভস বলে এক কথায়। এডিটিভস হিসেবে কোকো পিট, পার্লাইট, কোকোচিপ্স(নারকেলের ছোবড়ার ছোট সাইজের টুকরা), পামিস(লাভা স্টোন) বালি, কম্পোস্ট, চারকোল, বার্ক(গাছের বাকল) অনেককিছু ইউজ করা যায়। তবে সহজলভ্য এবং কমদামী এডিটিভস এর মধ্যে কোকোপিট এবং চারকোল বেস্ট।

কোকোচিপ্সও (নারকেলের ছোবরার কুচি) সহজেই পাওয়া যায়, পামিস সম্ভবত আমাদের দেশে এভেইলেবল না, হলেও দাম খুব বেশি, পার্লাইট এখন অনেক জায়গায় পাওয়া গেলেও দামে এখনো হাতের নাগালে আসেনি (অন্তত আমার আসেনি!)। আমি এদের একটা অল্টারনেটিভ হিসেবে ব্যাবহার করি স্টোন চিপ্স, সাধারনত গাছের ডেকোরেশনের জন্য সাদা পাথর যেগুলা পাওয়া যায় এগুলাই ভাল এয়ারেশন দেয়! এখন সব এডিটিভস যোগাড় করে ভাবনায় পরলেন কোনটা কতটুকু দেয়! এটা নিয়েও আসলে জটিল অংক কষে লাভ নাই। আমার কাছে যেগুলো বেসিক লাগে সেগুলা বলার চেষ্টা করি।

প্রথম কথা মিডিয়া যেন কম্প্যাক্ট না থাকে। বেইজ হিসেবে মাটিটা যেন এটেল মাটি না হয়, এবার নার্সারিতে পাওয়া অন্য যেকোন মাটি নিলেই হবে (আমার লোকাল নার্সারিতে সার মিশানো মাটি বিক্রি করে, একটু হেভি তবে এটেল না)। অনেকে মিডিয়াতে মাটি ইউজই করেনা, সেক্ষেত্রে কোকোপিট বেইজ হিসেবে কাজ করে!

এখন এই মাটির সাথে আপনি কতটুকু কি মিশাবেন তা ডিপেন্ড করে কোন গাছ লাগাবেন, আপনি কি রকম পানি দেন (ওভার অর আন্ডার ওয়াটারিং) তার উপর। কোকোপিট, কম্পোস্ট এগুলা পানি ধরে রাখে, কোকো চিপ্সও পানি ধরে রাখে তবে শুকায়ও খুব দ্রুত। চারকোল, স্টোন চিপ্স, পার্লাইট, কোকোচিপ্স (অর্থাৎ সাইজে বড় অবজেক্ট) মেইনলি মিডিয়ায় এয়ারেশন বাড়ায় এবং ড্রেনেজ ভাল দেয়। এখন যে গাছটা লাগাচ্ছেন সে যদি পানি বেশি ভালবাসে তাহলে তার মিডিয়ায় কোকোপিট বাড়িয়ে দিন, পানি একটু কম ভালবাসলে কোকোপিট কমিয়ে বড় সাইজের এডিটিভস বাড়ান।

আবার আপনি যদি পানি বেশি দিতে ভালবাসেন তাহলে মিডিয়াকে ওয়েল ড্রেইনিং বানান৷ আর আন্ডারওয়াটারার অথবা ব্যাস্ত মানুষ হলে কোকোপিট বাড়ান। এটা হচ্ছে মিডিয়ার মেইন বেসিক। মিডিয়াতে বালি ব্যাবহার বেশ জনপ্রিয়, তবে আমি কখনো করিনি তাই এ বিষয়ে ভাল মতামত দিতে পারছিনা ( সিলেট স্যান্ড, সিলেকশনের বালি সম্ভবত মিডিয়ার জন্য বেস্ট)। আর কম্পোস্ট বা জৈব সার মিডিয়ায় শুরুতেই মিশিয়ে দেয়া নিয়ে আমার অভিজ্ঞতা ভাল না, তাই আমি এটা এভয়েড করে, হোমমেড কম্পোস্ট হলে নিশ্চিন্তে ব্যাবহার করা যেতে পারে! আর আপনার অভিজ্ঞতা ভাল থাকলে তো আর চিন্তার কিছুই নেই। অনেকে জিজ্ঞেস করতে পারেন মিডিয়ায় সার না মিশালে গাছ কোথায় পুষ্টি পাবে, এটার উত্তরও চেষ্টা করব দিতে, তবে সে বিষয়েও আমার অনেক প্যাচাল আছে, আরেকদিন লিখব সেটা নিয়ে!
হ্যাপি গার্ডেনিং - Sahara Anzum (লেখক)

বাগান করার জিনিসপত্র 

black pruning shears beside green gloves

০১।  গার্ডেন গ্লাভসঃ
মাটি নিয়ে কাজ করবেন তাই হাতের সুরক্ষায় গ্লাভস ইউজ করতে পারেন।
এতে করে মাটিতে থাকা ধারালো বস্তু থেকে আপনার হাত ভালো থাকবে আবার হাতে বিভিন্ন খয়ে যাওয়া সহ অন্য রোগ বালায় থেকে দূরে থাকতে পারবেন।

০২। স্প্রেয়ারঃ গাছে পানি দিতে স্প্রেয়ার ইউজ করতে পারবেন। অল্প অল্প করে পরিমান মত পানি দিতে স্প্রেয়ার বেশ হেল্প করতে পারবে বলে আমি মনে করি।

০৩। বেলচাঃ বাগান করবেন আর মাটি এখান সেখান করবেন না তা তো হয় না।
বাগান করতে মাটি নিয়ে কাজ করতে হবে আর এর জন্য বেলচা আপনাকে আপনার ভার অনেক টা সহজ করে দিতে পারে।
Person Digging on Soil Using Garden Shovel

০৪। বাগানের রেকঃ  ঘাস আগাছা ইত্যাদি সরাতে, মাটি নিংড়াতে ইত্যাদি কাজে এই রেক ইউজ করতে পারবেন। অনেকটা চিরুনির মত কিন্তু মাথার না বাগানের চিরুনি আরকি।

০৫ঃ হোজ পাইপঃ গাছে পানি দিতে, বাগান তৈরি করতে বার বার বালতি নিয়ে পানি আনা নেওয়া করতে ভালো লাগে?
যদি ভালো লাগে তাহলে তো ভালো।
আর যদি ভালো না লাগে তাহলে পানি দেওয়ার জন্য হোজ পাইপ ইউজ করতে পারেন।
সময় আর শ্রম দুইটাই বাচাতে সাহায্য করবে।

ফুলের বাগান নাকি ফলের বাগান করবেন?

ছাদে কিংবা জমিনে যেখানেই বাগান করেন না কেন শখের বাগানের জন্য ফুল নাকি ফল এর বাগান করবেন তা বেশ ভাব্বার বিষয়।
ফুল তো খেতে পারবেন না আবার ফল দেখে ফুলের মত অন্তর ভরবে না!!
তাই ফুল নাকি ফলের বাগান করবেন তা একটু ভাবুন।

আমার মনে হয় অর্ধেক অর্ধেক ঠিক আছে।
কিছু ফুলের গাছ লাগান কিছু ফলের।
ফুল ও দেখা হলো আবার ফল ও খাওয়া হলো। 

Green Leaf Plant Beside River

ফুলের বাগানের পিকচার

HD Picture Download করতে নিচে ২ সাইট দিচ্ছি সেখান থেকে ডাউনলোড করতে পারেন।
All free Picture
Pexels

Bunch of Pink Tulips

গোলাপ ফুলের বাগানের ছবি


empty hallway


ফুলের বাগানের ফটো

red flower on pot surrounded by plants

white-petaled flowers beside brown concrete staircase

green leafed plant

green vine plants on arc covered pathways

empty pavement under trees

brown wooden bridge

low angle photo of gray building with green plants



HD Wallpaper | Background Image ID:96192

নতুন ফুলের ছবি - ফুলের ছবি গোলাপ


rose

flower garden

HD Wallpaper | Background Image ID:686008

HD Wallpaper | Background Image ID:593960


HD Wallpaper | Background Image ID:313682
tulip field background

photo of green linear plants

Powered by Blogger.