আযানের উত্তর ও দোয়া মোনাজাত ও জবাব দেওয়ার ফজিলত। আজানের সময় পূর্ণাঙ্গ দোয়া ও নিয়ম

আযানের উত্তর ও দোয়া  মোনাজাত ও জবাব দেওয়ার ফজিলত। আজানের সময় পূর্ণাঙ্গ দোয়া ও নিয়ম বাংলা pdf এবং ছবি 

আজানের জবাব বা দোয়া এর রয়েছে অনেক ফজিলত এবং এই আমলটি অনেক সহজ আমল ও বটে তাই করতেও কষ্ট নাই। জাস্ট আজানের সাথে সাথে নিজেও সেই বাক্য গুলো উচ্চারন করা আর ২/১ টা ভিন্ন দোয়া করলেই আযানের জবাব দেওয়া হয়ে যায়।
বাকি থাকে আজানের দোয়া যা আজান পরবর্তী সময়ে করতে হয়। এটিও ছোট দোয়া। আমাদের অনেকে ছোটবেলায় বিটিভি তে এই দোয়া শুনতে শুনতে হইতো মুখস্তও করে ফেলেছিলো সে সময়ে!!

কি কি পাচ্ছেনঃ 

  1. আযানের উত্তর দেওয়া
  2. আজানের দুআ
  3. আযানের জবাব কিভাবে দেয়
  4. আযানের জবাব দেওয়ার ফজিলত
  5. আজানের পূর্ণাঙ্গ দোয়া


  • আজানের সময় দোয়া
  • আযানের দোয়া pdf
  • আযানের উত্তর ও দোয়া
  • আযানের মোনাজাত

 ছবি গুলোর ক্রেডিটঃ Do Halal Design 

১। আজানের জবাব এর ৫ ফজিলত 


২। আযানের জবাব


আযানের জবাব ২


৩। আজানের মর্যাদা 


৪। আজানের পরে শাহাদাত পাঠ 


৫। শাহাদাত এর বাংলা অর্থ

৬। শাহাদাত এর ফজিলত 

৭। মহানবী (সাঃ) এর উপর দুরুদ পাঠ






৮। আযানের পরে দোয়া 



ছবিঃ  আযানের পর কোন দোয়া পড়তে হয়


৯। আজানের দোয়া ও অর্থ 


১০। আজানের দোয়ার ফজিলত 


১১। আজানের শেষে দোয়ার গুরুত্ব 

আরো দেখুনঃ


  1. Azaner Bangla Dua
  2. Azaner Jobab
  3. আযানের উত্তর
  4. আজানের জবাব দেওয়ার নিয়ম
  5. আযানের উত্তর দেয়া কি

নওমুসলিমাহঃ নুরুন আলা নূর | লেখাঃ Osman Goni

এক,
ফজরের সালাত পড়ে বারান্দায় এসে দাঁড়িয়েছে সুহা। আকাশটা এখনাে গাড় অন্ধকার; কিন্তু স্নিগ্ধ বাতাসের মিষ্টি গ্রাণই জানান দিচ্ছে ভােরের আবির্ভাব। বাস্ত শহরটা এখন গভীর ঘুমে স্তদ্ধ। নিজেকে এই মুহূর্তে পৃথিবীর সবচে সৌভাগাবান বলে মনে হচ্ছে সুহার। কিছুদিন আগেও এইসময় সে ঘুমাতে যেত। আর আজকে অনেক সাধ্যসাধনা, অনেক অনেক দুআর পরে আযানের আগেই ঘুম ভেঙে গেছে তার। মন চাইছে শহরের সবাইকে ডেকে বলে, ওঠো ওঠো, ফজরেগ ও শেষ হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু শহর তাে দূরে থাক, নিজের বাসার মানুষগুলােকেও ডাকা সাহস নেই তার। দ্বীনের পথে আসার পরে সে যাই করে তাই সন্দেহন লাগে
তার বাসার মানুষগুলাের কাছে। যদিও জন্মসূত্রে তারা সবাই মুসলিম।
এই তাে গতকালের কথাই। কুরআন পড়ছিল সে মাগরিবের পর। অদ্ভুত সব কথা কানে এলো।
সুহা, মা, কার সাথে মিশছিস তুই? কোন দলের সাথে জড়িয়ে গেলি? কে তােরি ব্রেইন ওয়াশ করছে সত্যি করে বল। ধর্ম-কর্ম
তাে আমরাও করি; কি এত কম বয়সে এসব কি? বলছিলেন সুহার বাবা। আব্দুর রাজ্জাক সাহেব।
এমন কথার কী জবাব দেবে ভেবে পায়নি সুহা। সুহার বাবা একজন উদারমনা, আধুনিক, বিজ্ঞানমনক মানুষ। বই পড়ার অভ্যাস সুহা তার বাবার কাছেই পেয়েছে। প্রতিমাসেই গাদাগাদা বই কিনে দিতেন মেয়েকে আব্দুর রাজ্জাক সাহেব। শরৎ, রবীন্দ্র, বঙ্কিম থেকে শুরু করে লরা ইংগেলস, পার্ল এস বাক, সিডনি শেলডন পর্যন্ত। মেয়ের মানসিক বিকাশে খরচ করতে কখনাে কার্গণ্য করেননি তিনি; কিন্তু আজ যখন সুহা দ্বীন নিয়ে পড়া শুরু করেছে, কুরআন-হাদীসের বইয়ে মুখ গুঁজে রাখছে, না চাইতেই কুঞ্চিত হচ্ছে তার। এত অল্পবয়সে এসব কী!
জোর করে মাথা থেকে এসব চিন্তা তাড়াল সুহা। আজকে তার জন্য খুবই শােল দিন। আজকে সে প্রথম হিজাব করবে। বসুন্ধরা থেকে চুপি চুপি একটা স্কার্ফ কিনে এনেছে সে। বাসার কেউ জানে না। জানলেই শোরগোল পাকাবে। সে ভেবে রেখেছে কীভাবে কী করবে। বাসা থেকে বের হয়ে লিফটে উঠেই সে স্কার্ফটা পরবে। আবার বাইরে থেকে এসে লিফটে করে ওপরে ওঠার সময় খুলে ফেলবে। বাসার কেউ জানবে না।
পর্দা করা ফরজ। না করে উপায় নেই। কিন্তু বাসায় কিছুতেই এটা বােঝানাে যাবে না।
মেঘ রোদ্দুর বৃষ্টি - বই থেকে নেওয়া
একটি সমকালীন প্রকাশন পরিবেশনা



বই: আব্বাসি খিলাফাহ : লেখক: ইমরান রাইহান


বই: আব্বাসি খিলাফাহ
ধরন: ইতিহাস
লেখক: ইমরান রাইহান
প্রচ্ছদ: শাহ ইফতেখার তারিখ
প্রকাশক: ইত্তেহাদ
পৃষ্ঠা: ৪৫০
বাঁধাই: হার্ডকভার ডায়েরি বাঁধাই
কাগজ: ৮০ গ্রাম অফহোয়াইট
মুদ্রিত মূল্য: ৮০০৳
প্রি-অর্ডার মূল্য: ৩৭০৳
প্রি-অর্ডার চলবে ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত

একাধিক নাস্তিক ও আল্ট্রা সেক্যুলার ব্যক্তির সাথে আমার ওঠাবসা হয়েছে, যারা ভার্সিটির 'ইসলামের ইতিহাস'-এর ছাত্র। একটা ইসলামী সাবজেক্ট পড়ে কেন মানুষ ইসলাম থেকে দূরে সরে যাবে। পরে জানলাম, বিভিন্ন বিষয়ে সেখানে ওরিয়েন্টালিস্টদের (পিকে হিট্টি প্রমুখ) গবেষণা পাঠ্য হিসেবে আগে রাখা হয়। ওরিয়েন্টালিস্ট মানে হল, পশ্চিমা যারা প্রাচ্য নিয়ে গবেষণা করে, এবং পশ্চিমা একাডেমিতে স্বতন্ত্র ডিসিপ্লিন হিসেবে ওরিয়েন্টাল স্টাডি প্রতিষ্ঠিত।

পশ্চিমাদের রচিত ইতিহাসে মোটাদাগে কিছু সমস্যা রয়ে যায়। বিজ্ঞানচর্চার মত ইতিহাস চর্চায়ও পশ্চিমা সমাজমানসের প্রভাব পড়ে। বস্তুবাদের নামে যদিও বস্তুনিষ্ঠ হবার একটা ভান করে, কিন্তু পশ্চিমা ধ্যানধারণার প্রভাব থেকে তাদের গবেষণা মুক্ত হতে পারে না। ফলে ইতিহাসের একটা পজিটিভ ঘটনাকে প্রুভ করার চেয়ে ডিজপ্রুভ করার প্রবণতা রয়েই যায়। বেশি শক্ত প্রমাণের চেয়ে দুর্বল প্রমাণ দিয়ে ভিলেন বানানো ইত্যাদি ওরিয়েন্টালিস্টদের মধ্যে কমবেশি পাওয়া যায়/ কেউ বেশি কট্টর, কেউ কম, এই যা।

বাংলা ভাষায় ইসলামের ইতিহাসচর্চা বলতে আমরা সাম্প্রতিককালে অনুবাদের আধিক্য দেখতে পাই (রাগিব সারজানি, আলী সাল্লাবী প্রমুখ)। আমাদের হিন্দুস্তানেও মুয়াররিখ আলিম ছিলেন অনেকেই, তাদের রচনাগুলোও আসা প্রয়োজন। রাশেদ কান্ধলভী রহ. এর কাজগুলোর সাথে পাঠকদের পরিচিত করা উচিত। সংগ্রামী সাধকদের ইতিহাস বইটা যে শুধু সাধকদের ইতিহাসই না, ইসলামের ইতিহাসেরও একটা গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থ, এটা নাম শুনে বুঝা যায় না।

 ইসলামের ইতিহাস শুধু রাজনৈতিক ইতিহাসই না, ইলমের ইতিহাস, ইসলামী দর্শনের ইতিহাস, আন্দোলনের ইতিহাস সবই শামিল।
আলহামদুলিল্লাহ, শুধু অনুবাদ নিয়ে পড়ে না থেকে বাংলায় মৌলিক কাজও হচ্ছে। বিশেষ করে উস্তায সাদিক ফারহান ভাই, উস্তায ইমরান রাইহান ভাই, উস্তায মাহমুদ সিদ্দিকী ভাইয়েরা মূল ইতিহাসের গ্রন্থে গিয়ে মৌলিক বিশ্লেষণের মাধ্যমে লেখা উপহার দিচ্ছেন। 'আব্বাসি খিলাফত' বইটাও সেই উদ্যোগেরই ধারাবাহিকতা।

 ইতিহাসের নিছক বিবরণ না, 'চোখ কপালে উঠার মত' কিছু থাকবে আশা করি। হয়ত বহু বছরের বন্ধ কোনো জানালা খুলে ইতিহাসের ঘরে এনে দেবেন ঝকঝকে রোদ।

ইতিহাস ভুলিয়ে দেয়া হয়েছে আমাদের। কাউকে দাস বানিয়ে রাখতে চাইলে তার ইতিহাস তাকে ভুলিয়ে দিন। তাকে জানতে দেবেন না যে, তার পূর্বপুরুষ কোনোকালে সম্রাট ছিল। হীনম্মন্যতা এই স্তরে পৌঁছেছে, আজ মুসলিমরা নিজেদের ইতিহাস অস্বীকারই করে। ইতিহাসচর্চা শুধু বইয়ের মাঝে সীমাবদ্ধ না থাকুক। আড্ডায়, ক্লাসে, কোচিং-এ, বাসায়, যানবাহনে চলুক ইতিহাস চর্চা। আমাদের নিজেদের ইতিহাস। চেপে রাখা ইতিহাস।
- Shamsul Arefin Shakti



টপিকের বাইরের ইসলামিক লেখা ঃ বিয়ে 

বিয়ে।। এ যেন আল্লাহর এক অশেষ নিয়ামত।। বিয়ে হল আল্লাহর তরফ থেকে কিছু বান্দার জন্য অনেক বড় হাদিয়া। এবং কিছু বান্দার জন্য অনেক বড় পরীক্ষা।।
বিয়ে করা হল সুন্নাহ। বিয়ে বান্দার অর্ধেক দীনকে পরিপূর্ণ করে। এবং কিছু কিছু ব্যক্তির দীনকেই শেষ করে দেয়। যদি আল্লাহর তরফ থেকে আপনি নেককার স্বামী বা স্ত্রী লাভ করেন তাহলে সেটা হবে হাদিয়া। আর যদি আপনি নেককার স্বামী বা স্ত্রী না পান তাহলে সেটা হবে আল্লাহর তরফ থেকে আপনার জন্য অনেক বড় পরীক্ষা। অনেক ভাই বা বোন আছে যারা আল্লাহর সব হুকুম আহকাম মানার জন্য সর্বদা প্রস্তুত। কিন্তু দেখা যায় তারা সেরকম মনের মত লাইফ পাটনার পান না। আল্লাহ আপনাকে ভালোবেসে হয়তোবা এই পরীক্ষার ভিতর ফালাইছে। আল্লাহ দেখতে চান আপনি বিষয় টা কিভাবে মেনেজ করেন। যদি এই পরীক্ষায় আপনি সফল হন তাহলে কাল কিয়ামত এ আপনি আল্লাহর প্রিয় বান্দাদের ভিতর একজন হতে পারবেন।
বিয়ে কিভাবে আবার দীনকে শেষ করে দেয়?? অনেক ভাই বা বোন কে দেখা যায় বিয়ের আগে অনেক ভালো প্রাক্টিসিং মুসলিম হতে। কিন্তু বিয়ের পর সে তার বদকার স্বামী বা স্ত্রী এর সংস্পর্শে এসে একটু একটু করে নিজের দীনকেই বিক্রি করে দেয় শয়তান এর কাছে।। এর উদাহরন আমাদের সমাজে পরিচিত ভাই বা বোনদের দিকে তাকালেই আপনি দেখতে পারবেন।
তাই আমরা যারা অবিবাহিত আছি। সব সময়ই আমাদের মাথায় রাখা প্রয়োজন বিয়ে কিন্তু আল্লাহর তরফ থেকে একটা পরীক্ষা। শুধু সারাদিন বিয়ে বিয়ে করলেই হবে না। বিয়ের আগে আমাদের অবশ্যই এই বিষয়ে মেন্টাললি প্রিপেয়ার থাকা প্রয়োজন। তা না হলে কিন্তু এই স্বামী বা স্ত্রীই কাল আমার জাহান্নামের কারণ হতে পারে।।
- মো শামসুদ্দোহা জিম।।
Powered by Blogger.