কিভাবে পড়া মনে রাখবেন ? আসুন জেনে নেই পড়া মনে রাখার বৈজ্ঞানিক উপায় | পড়া মুখস্ত রাখার অসাধারণ ১৪ টি কৌশল

কিভাবে পড়া মনে রাখবেন ? আসুন জেনে নেই  পড়া মনে রাখার বৈজ্ঞানিক উপায় | পড়া মুখস্ত রাখার অসাধারণ ১৪ টি কৌশল 

কিভাবে পড়া মনে রাখবেন ? আসুন জেনে নেই  পড়া মনে রাখার বৈজ্ঞানিক উপায় | পড়া মুখস্ত রাখার অসাধারণ ১৪ টি কৌশল






  পড়া মুখস্ত করার দোয়া  ও পড়া মনে রাখার দোয়া


১ঃ এক- পড়ালেখা করতে ইচ্ছা করে না কেন? নিশ্চয়ই কোনো কারণ আছে। অন্যান্য ব্যস্ততা কিংবা দুশ্চিন্তা-দুর্ভাবনা। যদি প্রথম কারণ হয় তাহলে সেসব অবশ্যই পরিত্যাগ করতে হবে। পড়ালেখার জন্য একনিষ্ঠতা অপরিহার্য। অন্য সকল ব্যস্ততা পরিহার করলে ইনশাআল্লাহ মন বসতে থাকবে।। নিজেকে ও নিজের সকল বিষয়কে আল্লাহ তাআলার কাছে সোপর্দ করে ভারমুক্ত হও এবং পড়াশোনায় মগ্ন হয়ে যাও। নিম্নের দোয়াটি মুখস্থ করে মাঝে মাঝে পড়বে–
اللَّهُمَّ إِنِّي أَعُوذُ بِكَ مِنَ الْهَمِّ وَالْحَزَنِ، وَالْعَجْزِ وَالْكَسَلِ، وَالْبُخْلِ وَالْجُبْنِ، وَضَلَعِ الدَّيْنِ وَغَلَبَةِ الرِّجَالِ
অর্থ: হে আল্লাহ! নিশ্চয় আমি আপনার আশ্রয় নিচ্ছি দুশ্চিন্তা ও দুঃখ থেকে, অপারগতা ও অলসতা থেকে, কৃপণতা ও ভীরুতা থেকে, ঋণের ভার ও মানুষদের দমন-পীড়ন থেকে।”
হযরত আনাস রাযি. হতে বর্ণিত, রাসূল  চিন্তাযুক্ত অবস্থায় উক্ত দোয়া পড়তেন। (বুখারী ২৮৯৩)

A। অধিক হারে আল্লাহর যিকির করবে। যেমন- সুবহানাল্লাহ, আলহামদুলিল্লাহ, লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ, আল্লাহু আকবার ইত্যাদি পড়া। আল্লাহ তাআলা বলেন: واذكر ربك إذا نسيت“যখন ভুলে যান তখন আল্লাহর যিকির করুন”। (সূরা কাহাফ: ২৪)
B। কোন কোন আলেম এমন কিছু খাবারের কথা উল্লেখ করেছেন যেগুলো মুখস্থশক্তি বৃদ্ধি করে। যেমন- মধু ও কিসমিস খাওয়া।
ইমাম যুহরী বলেন: তুমি মধু খাবে; কারণ এটি স্মৃতিশক্তির জন্য ভাল।
তিনি আরও বলেন: যে হাদিস মুখস্ত করতে চায় সে যেন কিসমিস খায়। (খতীব আল-বাগদাদীর ‘আল-জামে’ ২/৩৯৪)
আলেমগণ আরও বলেন: অম্লজাতীয় খাবার স্মৃতিশক্তির জড়তা ও মুখস্থশক্তির দুর্বলতা বাড়ায়।
C । মুখস্থশক্তি বৃদ্ধি ও ভুলে যাওয়ার সমস্যা প্রতিরোধে আরও যে জিনিসটি সাহায্য করে সেটি হচ্ছে- মাথায় শিংগা লাগানো। এটি পরীক্ষিত। (আরও বিস্তারিত জানতে ইবনুল কাইয়্যেম এর ‘আততিব্ব আন-নাবাবি’ পড়)।
والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী 


study table



পড়া মুখস্ত করার অসাধারণ কিছু কৌশল


২ঃ  নিচু শব্দে পড়া ঃ কারো কারো মতে উচু সব্দে পড়ার চেয়ে নিচু শব্দে পড়া উত্তম বা অধিক কার্যকর পড়া মনে রাখার জন্য ।আপনি যদি উচু শব্দে পড়ে অভ্যস্ত হন কিন্তু পড়া মনে রাখতে পারেন না তাহলে নিচু শব্দে পড়ে দেখতে পারেন। 
তবে এ পদ্ধতি সবার জন্যই হবে এমন টা না। তাই নিজের মতো করে পড়ে দেখুন। 

৩ঃ প্রধান টপিকস গুলো চিহ্নিত করা ঃ 
একটা  পড়ার সব লাইন কিংবা সব টপিকস এ  গুরুত্বপূর্ণ না।
মুল লাইন গুলো আগে চিহ্নিত করুন। হাই লাইট করুন। লাইন গুলো বারবার মাথাই গেথে নিন তাহলে অন্য গুলো বুঝতে এবং মনে রাখতে সহজ হবে।

৪ ঃ অনুমান করা ঃ পড়ার সময়  একটা লাইনের পরের লাইন কি হবে টা অনুমান করুন তাহলে গল্পের মতো মাথাই থেকে যাবে। এক্তু ভাবুন গল্প পড়ার সময় এক অংশ পড়ার মধ্যেই  মাথাই বাকি অংশ কি হবে সেতা নিয়ে চিন্তা শুরু করে , সেতা যদি মিলে যাই তাহলে সেতা মনে রাখা সহজ ।



পড়া মনে রাখার গোপন রহস্য


৫ঃ লিখে লিখে পড়া ঃ কথাই আছে একবার লেখা  ৫ বার পড়ার সমান।একবার রিডিং পড়ে একবার দেখে দেখে লিখে ফেলুন। দেখে দেখে লিখার সময় পরাতা মাথাই আটকে যাবে তাই মনে রাখাও সহজ হবে।


পড়াশোনা


 ৬ঃ সময় নির্ধারণ ঃ সারাদিন পড়লেই হইনা । একেকজনের জন্য একেক সময় পড়ার জন্য উপযুক্ত ।কেও বিকেলে না খেললে পরাই মন দিতে পারেনা আবার কেও কেও বিকেলেই বেশি পড়াই মন রাখতে পারে।
ফজরের সালাত কিংবা মাগ্রিবের সালাতের পর পড়তে বস্তে পারেন।
পড়ার আগে অবশ্যই ইল্ম বৃদ্ধির দুয়া পড়ে নিবেন।



  1. পড়া মনে রাখার বৈজ্ঞানিক উপায়
  2. পড়া মনে রাখার গোপন রহস্য
  3. পড়া মুখস্ত করার অসাধারণ কিছু কৌশল
  4. পড়া মনে রাখার ৯টি কৌশল বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি - অজানা তথ্য
  5. পড়ালেখা করার নিয়ম
  6. পড়ালেখার রুটিন
  7. পড়াশোনা
  8. পড়ালেখার ছবি
  9. পড়ালেখায় মনোযোগী হওয়ার উপায়





পড়া মুখস্ত করার অসাধারণ কিছু কৌশল


৭ঃ অন্যকে শেখানো ঃ আপনি আপনার বন্ধুকে পড়া শিখিয়ে দিন।এতে   আপনার জন্যই পড়াটা  সহজ  হবে।অন্যকে পড়া শেখানোতে পড়াটা  আপণার মস্তিষ্ক ভিন্ন দিক  থেকে 
ক্যাচ করে । তাই একবার ছাত্র হন আর আরেকবার হন শিক্ষক ।

৮ঃ বিরতি দিন  ঃ এক টানা পড়তে থাকলে টা অনেক সময় এ মনে থাকেনা। ব্রেন কে রেস্ত দিন। আসর সালাতের পর  কিছু সময় শরীর চর্চা করে ঘাম ঝরান । পড়তে পড়তে বেহুদা পড়ার সময় বিরতি দিয়ে পড়ুন। কাজে দিবে ইনশাআল্লাহ্‌ ।

৯ ঃ ভিডিও দেখুন ঃ যে বিষয় পড়তিছেন সে বিষয়ে কোন ভিডিও ক্লিপ থাকলে সেটা দেখুন। মিউজিক থাকলে দেখার দরকার নেই । অন্য ক্লিপ দেখুন।  ভিডিও ব্রেনে বেশি সময় ধরে সংরক্ষিত থাকে। তবে সাবধান পড়ার ভিডিও দেখতে গিয়ে হারাম ভিডিও দেখা শুরু করবেন না। নেতে আসার আগেই কেনও আসলাম কি কাজ কতক্ষন থাকবো ইত্যাদি নির্ধারিত করা নিবেন নইতো আপনার মূল্যবান সময় নসট  হবে  সাথে পাপ ও হবে।

১০ঃ পড়ার আগে হাটা ঃ গবেষণাই দেখা গেছে  হাঁটাহাঁটি করলে বা শরীর চর্চা করলে ব্রেনের ক্ষমতা বৃদ্ধি পাই । (নেট থেকে পাওয়া তথ্য। কারা গবেষণা করছে তা  জানিনা) 
পড়ার আগে কিছুক্ষন হাতুন পুশ আপ দিন । ব্রেন ফুরফুরে হবে আর পড়া মনে রাখা সহজ হবে।




১১ঃ কন্সেপ্ট ট্রি ঃ সম্পূর্ণ  এক্তা অধ্যায় কে একটা গাছ হিসেবে ধরুন  আর  মুল পয়েন্ট গুলো কে  ডাল হিসেব করুন । প্রত্যেক ডালের সারমর্ম করুন। সারমর্ম গুলো কে গাছের ডালপালার মতো করে সাজিয়ে নিন। এবার পুরো গাছকে দেখুন!!

১২ঃ কালার পেন এর ব্যাবহার ঃ কালার পেন দিয়ে মুল পয়েন্ট গুলো দাগিয়ে নিন। চোখ মুল পয়েন্ট গুলো কে বিশেষ ভাবে ক্যাঁচ করে ব্রেনে বার্তা পাঠাবে । মনে রাখা সহজ হবে। 

১৩ ঃ পর্যাপ্ত ঘুম ঃ ঘুম আল্লাহ্‌ র পক্ষ থেকে একটা নিয়ামত । ঘুমের সময় আমাদের ব্রেন মেমরি তৈরি  করে (ঐ। গুগল করে জেনে নিন)
একজন মানুশের জন্য ৫/৬ ঘন্টায় যথেষ্ট । 

১৪ ঃ সুস্থ শরীর ঃ শরীর সুস্থ থাকলে মন ও কনো কিছুতে মনোযোগ দিতে পারে না। তাই পড়া মনে রাখতে শরীর সুস্থ রাখতে চেষ্টা  করুন । 
Powered by Blogger.