সেকুলার আর লিবারেল ধর্মের ডাবল স্ট্যান্ডার্ডঃ

সেকুলার মোডারেটদের সো কল্ড উদারমনা থেকে কট্টর সত্যমনা উত্তম। 

আধুনিক সেকুলার এবং লিবারেল ধর্মের অন্যতম একটি শ্লোগান হল, যেকোন ভিন্নমতের প্রতি শ্রদ্ধা পোষণ। এই শ্লোগানের উদ্দেশ্য ইসলামী শরীয়ার ফিকহী ভিন্নমত নয়। উদ্দেশ্য কুফুরী ভিন্নমত। যেমন আল্লাহর শরীক আছে। এটাও একটা ভিন্নমত। কোন মুসলিম এই ভিন্নমতের প্রতি শ্রদ্ধা রাখতে পারে না। কুফুরকে ঘৃণা করা ঈমানের অন্তর্ভুক্ত। আর কুফুরকে ভালবাসা পৃথক আরেক কুফুর।


কিন্তু সেকুলার আর লিবারেলরা আমাদের কুফুরের প্রতি আন্তরিক শ্রদ্ধাশীল হওয়ার সবক দিয়ে কুফুরের প্রতিই আহবান করছে। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে অবমাননা করাও তাদের কাছে ভিন্নমত। তাঁর তরে আমাদের প্রাণ কুরবান হোক! তাঁকে অবমাননার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে কেউ কি মুসলিম থাকতে পারে?


এখানে তাদের একটা ডাবল স্ট্যান্ডার্ড আচরণ আছে। রাসূলের অবমাননা যেমন একটি ভিন্নমত ও ব্যক্তি স্বাধীনতার অধিকার আওতাভুক্ত কর্ম। ঠিক তেমনি শাতিমকে হত্যাযোগ্য বলা একটি ভিন্নমত এবং তাকে হত্যা করা ব্যক্তি স্বাধীনতার আওতাভুক্ত কর্ম। যদি রাসূলকে গালি দিয়ে বা অবমাননা করে কেউ আমাদের হৃদয়কে আহত করার অধিকার তার থাকে, তবে তার রক্ত ঝড়ানোও আমাদের স্বাধীন অধিকার হওয়ার কথা। কিন্তু লিবারেল এবং সেকুলাররা সেটা মেনে নিবে না।

একটা কথা মুসলিমদেরকে বুঝে নিতে হবে যে, তাদের সকল নীতিবাক্য কুফুরের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হয়। আর তাদের সকল বিচার ও আইন ইসলাম এবং মুসলিমদের ক্ষেত্রেই কার্যকর হয়।

পরিতাপের বিষয় হল, পশ্চিমাদের সাথে তাল মিলিয়ে মুসলিমরাও এই শ্লোগান জপে। কেবল সাধারণ মুসলিমই না, ইসলামী বিশ্বের বড় বড় বিদ্যাপীঠের পরিচালক ও প্রধানরাও এই শ্লোগানের শিক্ষা দেয়। তাও কোন সাধারণ বিষয়ে নয়, আমাদের কলিজার টুকরো, জীবনের থেকেও প্রিয় রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে অবমাননার ইস্যুতে।

উম্মাহর মুহাম্মাদ বিন মাসলামাহ এবং আব্দুল্লাহ বিন আতীকদের প্রতি:
أسعدكم الله في الدارين

- Iftekhar Sifat


যা খুশি বলা যদি মত প্রকাশের স্বাধীনতা হয় তাহলে যা খুশি করা কেনো হবে না? তুমি যা খুশি বলতে পারলে আমি কেনো যারে খুশি তারে মারতে পারবো না?   


Powered by Blogger.