ফ্রান্সে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের অবমাননার প্রতিবাদ জানানোর ১০ টি উপায় ( দুর্বল মুসলিমদের জন্য)

অপারগ দুর্বল মুসলিমদের জন্য ফ্রান্সের শয়তানির প্রতিবাদের উপায়   

ফ্রান্সের রাষ্ট্রীয় পর্যায় থেকে শুরু করে সাধারণ জনগন সবাই রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের অবমাননা করছে। এদের মতো দুঃসাহস মানব ইতিহাসে আগে কেউ কখনো দেখায়নি। শাতিম ফ্রান্সের উপযুক্ত পাওনা বুঝিয়ে দিতে আমরা অনেকেই অপারগ।তাই বলে চুপ করে থাকলে চলবেনা। আল্লাহর রাসূলের অবমাননা করা হবে, আর মুসলিমরা চুপ করে থাকবে এটা কখনোই হতে পারেনা। আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের অবমাননাকারী ফ্রান্সের বিরুদ্ধে আমাদের অবশ্যই প্রতিবাদী হতে হবে। আমরা নিম্নলিখিত কাজগুলো করতে পারি:

.

১) তাহাজ্জুদ, ৫ ওয়াক্ত ফরজ সালাতের পরে বেশী বেশী করে শাতিম ফ্রান্সের বিরুদ্ধে বদদোয়া করা। অভিশাপ দেওয়া। রাসূসুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বিভিন্ন সময় তাঁর শত্রুদের বিরুদ্ধে বদদোয়া করতেন। প্রসিদ্ধ সীরাতের বইগুলোতে এ বিষয়ে অনেক ঘটনা আছে।
.
২) কুনূতে নাযেলাহ পড়া।
.
৩) আপনার পরিবার, আত্মীয়স্বজন বন্ধু বান্ধবদের সচেতন করা। তাঁদেরকে রাসূল অবমাননার ভয়াবহতা বোঝানো। ফ্রান্সের জনগণ যে কত ভয়ঙ্কর অপরাধ করেছে সেটা বোঝানো।
.
৪) মসজিদের খতীব,ইমাম,মাদ্রাসার আলিমদেরকে প্রকৃত অবস্থা সম্পর্কে জানান। তাঁদের অনেকেই অনলাইন থেকে দূরে থাকার কারণে ফ্রান্সের জনগণের অপরাধ সম্পর্কে ধারণা পাচ্ছেন না। মসজিদের মিম্বার থেকে ফ্রান্সের ইস্যু নিয়ে খুতবাহ দেবার ব্যবস্থা করুন। আলিমদেরকে অনুরোধ করুন, এ বিষয়ে ৫ মিনিট হলেও বক্তব্য দিতে। মসজিদ কমিটিতে যারা আছেন সার্বিকভাবে সাহায্য করুন।
.
৫) ফ্রান্সের বিরুদ্ধে রাস্তায় নামুন। মিছিল করুন। মানববন্ধন করুন। সেমিনার করুন। লিফলেট বিতরণ করুন। এটা খুবই কাজে লাগবে। ফ্রান্সের দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করুন। অনেক ছোটোছোটো ব্যাপারে মানববন্ধন হয়। মিছিল হয়। আর রাসূলুল্লাহর জন্য কি কিছু হবেনা? রাসূসুল্লাহ কি এই উম্মাহর কাছে এতোটাই তুচ্ছ?

বাংলাদেশে অনেক ইসলামিক সংগঠন আছে,আলিম আছেন, মাদ্রাসা আছে। এতোকিছু থেকে কী লাভ যদি রাসূলুল্লাহর জন্য কোনো আওয়াজই না ওঠে? একটা মিছিল বা একটা মানববন্ধন পর্যন্ত না হয়! একটা অফিশিয়াল বিবৃতি পর্যন্ত না আসে!
এই যমীনে কি একজনও মুসলিম নেই? এই যমীনের বুকে কি একজনের বুকেও রাসূলের প্রতি ভালোবাসা নেই? শাপলা বা ভোলার চেতনা কি হারিয়ে গেছে এই জাতির হৃদয় থেকে?
.
৬) লেখালেখি, ভিডিও বানানো, ইমেজ বানানো, বক্তৃতা দেওয়া… আল্লাহ যাকে যে যোগ্যতা দিয়েছেন তা কাজে লাগিয়ে ফ্রান্সের অপরাধ সম্পর্কে সোচ্চার হোন।
.
৭) বিভিন্ন ধরণের ছাত্র সংগঠনগুলোর (কোটা সংস্কার আন্দোলন গ্রুপসহ আরো অনেক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন) সঙ্গে যোগাযোগ করুন। তাদেরকে বোঝান। তারাও তো মুসলিম। রাসূলের প্রতি তাদেরও দায়িত্ব আছে।
.
৮) ফ্রান্সের সকল পণ্য বয়কট করুন।
.
৯) যারা ফ্রান্সের গুনগান গাইবে, ফ্রান্সের পক্ষে সাফাই গাইবে তাদেরকে চিহ্নিত করে সামাজিকভাবে বয়কট করুন। ফ্রান্সে পড়াশোনা করতে যাবার প্ল্যান বাতিল করুন। ফ্রান্সের ফুটবল লীগ বয়কট করুন।
.
১০) বাংলাদেশ সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে যেন ফ্রান্সের রাসূল অবমাননার প্রতিবাদ জানায় তার জন্য আওয়াজ তুলুন।
.
এগুলো শুধু অপারগ মুসলিমের জন্য। সক্ষম মুসলিমদের অবশ্যই সে পদ্ধতিতে শাতিমকে সাথে দেনা পাওনা বুঝিয়ে দিতে হবে যেটি রাসূসুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মুহাম্মাদ বিন মাসলামাহা রাদিয়াল্লাহু আনহুকে শিখিয়েছিলেন।
.
#ফ্রান্স
#শাতিম
#বয়কট_ফ্রান্স
#RealityCheckBD
Powered by Blogger.