চিন্তাপরাধঃ আসিফ আদনান এর বাংলা ইসলামিক বই ডাউনলোড | প্রকাশনায় : ইলমহাউস পাবলিকেশন


চিন্তাপরাধ পাঠক অনুভূতি | আসিফ আদনান এর বাংলা ইসলামিক বই ডাউনলোড | প্রকাশনায় : ইলমহাউস পাবলিকেশন | Free PDF Download 


পাঠক অনুভূতি

● বই : চিন্তাপরাধ
● লেখক : আসিফ আদনান
● প্রকাশনায় : ইলমহাউস পাবলিকেশন
● পৃষ্ঠা সংখ্যা : ১৯২
● মূল্য : ১৯০ টাকা (নির্ধারিত)

লেখক পরিচিতি : আসিফ আদনান


লেখক আসিফ আদনানের জন্ম চট্টগ্রাম জেলায় ১৯৮৮ সালে। বেড়ে ওঠা ও পড়াশোনা ঢাকায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে অনার্স ও মাস্টার্স করেছেন।
এর আগে সম্পাদনা করেছেন সত্যকথন (সংকলন, ২০১৭), মুক্ত বাতাসের খোঁজে (লস্ট মডেস্টি,২০১৮), ইসলামি ব্যাংক: ভুল প্রশ্নের ভুল উত্তর (মূল: যাহিদ সিদ্দিকী, অনুবাদ: ইফতেখার সিফাত, ২০১৯)

প্রিয় পাঠক, বাগধারায় একটি কথা আছে ভিজা বিড়াল তথা কপটচারি, ধূর্ত, প্রতারক। আর আপনি কি জানেন দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের পর থেকে গোটা বিশ্ব বিশেষ করে মুসলিম বিশ্বের সামনে ভিজা বিড়ালের ভুমিকায় অবতীর্ণ হয় আমেরিকা। এটার কারণ হলো আমেরিকা কপটচারিতা, ধূর্তামি, প্রতারণার ষোল কলা পূর্ণ করেছে মুসলিম বিশ্বের সাথে।
.
এটা করেছে তারা তাদের পশ্চিমা সভ্যতা মুসলিমদের উপর চাপিয়ে দিয়ে। কত চমৎকার সব নাম, টার্ম দিয়ে মুসলিমদের ঈমান-আকিদা নষ্ট করে দিচ্ছে। অথচ আমরা মুসলিমরা নির্দ্বিধায় গিলে যাচ্ছি পশ্চিমাদের সভ্যতা, এমন কি নিজ ধর্ম নিয়ে হীনমন্যতায় ভোগা মুসলিমরা জাতে উঠার জন্য পশ্চিমাদের সভ্যতার মধ্যে পাইতেছে নিজেদের সম্মান, মর্যাদা, উন্নতি, উৎকর্ষ। এরা জানেনা পশ্চিমা সভ্যতা গড়ে ওঠার পিছনের গল্প, জানেনা আমেরিকার বিশ্বব্যাপী আগ্রাসনের নতুন ধারা, জানে না পশ্চিমাদের সভ্যতার অধঃপতন, জানেনা মুসলিমদের উপর চাপানো নতুন সব ধর্ম যা বিভিন্ন মোড়কে আমাদের গেলানো হচ্ছে, এরা জানে না আমেরিকার শান্তির নামে মানুষ হত্যার ষড়যন্ত্র।
.
উপরে উল্লেখিত বিষয় এবং এ ছাড়াও এমন কিছু বিষয়ের পোস্টমর্টেম নিয়ে লেখক আসিফ আদনান আমাদের সামনে হাজির হয়েছেন চিন্তাপরাধ নামক বইটি নিয়ে। হ্যাঁ, লেখক বইটির মাধ্যমে এমন সব বিষয়ের চিন্তার খোরাক যুগিয়েছেন মুসলিমদের জন্য যা আমার আপনার জন্য যতটা গুরুত্বপূর্ণ আমেরিকার চোখে ততোটাই অপরাধ, এ হলো চিন্তাপরাধ ৷
.
.

আমেরিকার স্বার্থসিদ্ধির সন্ত্রাস :



প্রিয় পাঠক, বইয়ের শুরুতেই লেখক দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় আমেরিকা কর্তৃক জাপানের হিরোশিমা ও নাগাসাকিতে আণবিক বোমার আঘাতে হত্যাযজ্ঞের এক ভয়াল চিত্র তুলে ধরেছেন। যে বোমার ব্যবহার ছিল অপ্রয়োজনীয় কিন্তু সন্ত্রাসী আমেরিকার শক্তি ও অহংকারের প্রদর্শন। আর যার ফলে প্রায় ৪ লক্ষ মানুষের প্রাণ দিতে হলো। অতঃপর উক্ত হত্যাযজ্ঞ নিয়ে তৎকালিন প্রেসিডেন্টের গৎ বাধা কিছু মুখস্ত বুলি।

এরপর ১৯৪৬ থেকে গত ৭৩ বৎসরে প্রায় ২ কোটি মানুষকে নিয়মিত বিরতিতে হত্যা করেছে মানবতার দাবিদার আমেরিকা। আর বিবৃতিতে রয়েছে কর্তৃপক্ষের মুখস্থ সব বুলি। যেখানে স্পষ্ট হয়েছে এই আমেরিকার প্রতিটি প্রেসিডেন্ট তাদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য বিশ্বব্যাপী জঘন্য সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়েছে ও চালিয়ে যাচ্ছে। এ সব হত্যাকাণ্ড নিয়ে প্রত্যেক প্রেসিডেন্টের কমন সব বুলি আওড়াতে দেখা গেছে।

আপনি বইটি সামনে যত পড়বেন দেখবেন সাম্রাজ্যবাদী আমেরিকার প্রেসিডেন্টদের নাম বদলেছে, মুখ বদলেছে, বদলেছে স্লোগান; কিন্তু বদলায়নি আমেরিকার সাম্রাজ্যবাদী ঠাণ্ডা মাথার ধ্বংসযজ্ঞের পলিসি।
.
.

সাম্রাজ্যবাদীদের আওড়ানো বুলির ধোঁকা :



প্রিয় পাঠক, বক্ষ্যমাণ বইটির অধ্যয়নে কিছু সংজ্ঞাগত ধোঁকার জট আপনার কাছে খুলে যাবে। শান্তি, মানবতা, ভালো মুসলিম, খারাপ মুসলিম, জঙ্গি, সন্ত্রাস, উগ্রবাদ সহ এমন এমন কিছু টার্মের সংজ্ঞা দিয়েছে আমেরিকা, যা আজ মুসলিম উম্মাহ গিলতেছে। কিন্তু আমরা কখনো চিন্তাও করে দেখিনি এই সংজ্ঞাগুলো কি আমেরিকা ঠিক করে দেবে। এই সংজ্ঞার মাপকাঠিই বা কি?

বইটি অধ্যয়নে আপনি বুঝতে পারবেন আমেরিকার শান্তি মানে হলো, ইরাকে ১০ বছর অবরোধ দিয়ে ৫ লক্ষাধিক শিশু হত্যা, শান্তি মানে হলো মিথ্যা অজুহাতে অবরোধের পরে ইরাকে হামলা করে ধ্বংস করা, শান্তি মানে হলো মুজাহিদরা জঙ্গি, মানবতা হলো আবু গ্বারিবে নির্মম ভাবে মুসলিম নির্যাতন করা। শান্তি হলো সন্তানের সামনে মাকে, বাবা-মায়ের সামনে মেয়ে ধর্ষণ, শান্তি মানে হলো আফিয়া সিদ্দিকাকে মিথ্যা মামলায় জেল অতঃপর উপর্যুপরি ধর্ষণ। এ সবের বিরোধিতা করবে যে সেই সন্ত্রাস, আর এ সকল বিষয় নিয়ে চিন্তা করবে যে সেই চিন্তাপরাধী ৷
.
.

উদারপন্থী, নাদান মুসলিম :



প্রিয় পাঠক বইটিতে লেখক এমন কিছু মুসলিম নামধারি ইসলামের নাদান দোস্তদের সাথে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে যারা মুখে ইসলাম ও ইসলাম প্রতিষ্ঠার কথা বললেও তারা ফিরিঙ্গি পশ্চিমাদের নিকট নিজের মাথা বন্ধক দেওয়া উদারপন্থী, মডারেট। যারা ইসলামকে চিন্তা করে পশ্চিমাদের ধাঁচে। এই গ্রুপটা দ্বীন ইসলামকে নিয়ে এতোটাই বিব্রত যে, তা যদিও মুখে সরাসরি বলে না তবে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে বলতে চায়। এরা জাতে ওঠার জন্য, মর্যাদা লাভের জন্য ইসলামকে শান্তির ধর্ম প্রমাণ করার জন্য সাম্রাজ্যবাদী আমেরিকার দেওয়া ফাঁদে পা দিয়ে সাম্রাজ্যবাদীদের এক একটি আদর্শগত আগ্রাসনকে ইসলামের প্রলেপ লাগিয়ে মুসলিম উম্মাহকে জাতে তুলতে নিয়ে কতটা অন্ধকারে ডুবিয়ে দিয়েছে তা লেখক চমৎকার করে তুলে ধরেছেন। আর এই হীনমন্যতায় ভোগা উদারপন্থীদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়েছেন সাম্রাজ্যবাদীদের উন্নতির পিছনে রয়েছে বিশাল পুকুর চুরির ইতিহাস। আর উন্নতির জন্য মিছে যে বুলি সাম্রাজ্যবাদী আমেরিকা আওড়ায় তা শুধুই ধোঁকা।
.
.

ধর্মনিরপেক্ষতা এক স্বতন্ত্র ধর্ম :



পাঠক, আমাদের মুসলিম দেশগুলো আজ সাম্রাজ্যবাদীদের গোলামি করে ধর্মনিরপেক্ষতার মোড়কে শাসন কার্য করছে। বইটি এই ধর্মনিরপেক্ষতাবাদের জঘন্য ষড়যন্ত্র তুলে ধরেছে।

ধর্মনিরপেক্ষতাবাদের দোসররা এই মতবাদ প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে চরম ধোঁকার আশ্রয় নিয়েছে। তাদের চমকপ্রদ বুলি হলো ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্রে সকল ধর্মের ধর্মীয় স্বাধীনতা বহাল থাকে। তাদের এমন মুখরোচক কথার ভিতরের ষড়যন্ত্র হলো ধর্মনিরপেক্ষতা মূলত একটি স্বতন্ত্র ধর্ম; যা প্রত্যেকটি ধর্মের উপর চেপে বসেছে। বিশেষ করে ইসলাম ধর্ম। রাষ্ট্রীয় ভাবে প্রত্যেক ধর্মের স্বাধীনতার নামে চালানো ষড়যন্ত্র লেখক চোখে আঙ্গুল দিয়ে স্পষ্ট করে দেখিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু কিভাবে ধর্মনিরপেক্ষতা একটি স্বতন্ত্র ধর্ম হলো, ইসলামের আর ধর্মনিরপেক্ষতার দ্বন্দ্ব কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা জানতে বইটি সংগ্রহ করুন।
.
.

সাম্রাজ্যবাদী আমেরিকার অন্তিম পর্যায় :



পাঠক, বইটি পড়তে নিয়ে যখন আপনি সাম্রাজ্যবাদী আমেরিকার একের পর এক আগ্রাসন দেখে বিচলিত, শঙ্কিত তখন ধৈর্য ধরে একটু আগে বাড়ুন। দেখুন লেখক চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়েছেন কি ভাবে ইতিহাসের অতল গহ্বরে হারিয়ে যাওয়ার শেষ পর্যায়ে অবস্থান করছে এই পশ্চিমা সাম্রাজ্যবাদী আমেরিকা। লেখক দেখিয়ে দিয়েছেন একটি সাম্রাজ্যের অন্তিম পর্যায়ে কোন কোন অবক্ষয়গুলো দেখা দেয়। যা আজ পশ্চিমা সাম্রাজ্যবাদীদের মধ্যে চরম পর্যায়ে অবস্থান করছে।
.
.

ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি :



লেখক ইতিহাসের পুনরাবৃত্তির বিষয়টি খুব অল্প কথায় আমাদের মনে করিয়ে দিয়েছেন। আজ আমরা যারা নিজেদের ইসলামি সভ্যতা ত্যাগ করে পশ্চিমা সভ্যতার মধ্যে নিজেদের গৌরব খুঁজি, উন্নতি দেখি সে সব মানুষদের জন্য বইটি কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা ভাষায় প্রকাশ করতে পারছি না।

ইতিহাসের দিকে তাকালে সভ্যতা ও যৌনতার মধ্যে একটা প্যাটার্ন দেখা যায়। কোন সভ্যতার অবক্ষয়ের দিকে তাকালে দেখা যায় শেষ মহুর্তে যৌনতার ভয়াবহ এক অবস্থা বিরাজ করে। যৌন উম্মাদনা, সমকামিতা, উভকামিতা,পশুকামিতা, শিশুকামিতা সহ নানা যৌনবিকৃতি। যা আজ পশ্চিমা সভ্যতার সাথে খাপে খাপে মিলে যাচ্ছে।

তাকিয়ে দেখুন ব্যাবিলন, মিসর, গ্রিস, রোম আর বাইযেন্টাইনের ইতিহাস। পুনরাবৃত্তি হচ্ছে সেই একই চক্রের, একই প্যাটার্নের।

আর প্রিয় পাঠক, এই যখন পশ্চিমা সভ্যতার অবস্থা ঠিক তখনি আর এক জাতি বিজয়ী হয়ে গড়ে তুলবে আর এক নতুন সভ্যতা। যাদের রয়েছে কিছু সুনির্দিষ্ট বৈশিষ্ট্য। কালের অমোঘ স্রোতে হারিয়ে যেতে না চাইলে আমাদের বেছে নিতে হবে একটি পক্ষ।
.
.

শ্বেত সন্ত্রাসী :



পাঠক, বইটির শেষের দিকে লেখক পশ্চিমা শ্বেত সন্ত্রাসীদের বেশ কিছু সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড তুলে ধরেছেন। তাদের ঘৃণ্য চিন্তা চেতনা, মুসলিমদের প্রতি তাদের বিদ্বেষ, এমন কি মুসলিম হত্যা করার সুযোগ তারা কখনো হাতছাড়া করে না। এ সব সন্ত্রাসীরা এগিয়ে যাচ্ছে সুনির্দিষ্ট কৌশল নিয়ে পশ্চিমের মুসলিমদের বিরুদ্ধে। যার প্রমাণ ১৫ মার্চ, ২০১৯ সালের ক্রাইস্টচার্চ, নিউজিল্যান্ডের আন-নূর মসজিদে হামলা ও ঠাণ্ডা মাথায় মুসলিম হত্যা।
.
.
কিছু কথা :

চিন্তাপরাধ এমন একটি বই , যা আপনার গোটা চিন্তার জগতকেই পাল্টে দেবে। বইটির অধ্যয়ন আপনাকে নতুন করে ভাবতে শিখাবে। বইটি সকল দ্বীনমুখী ভাই/বোন, তালেবুল ইলম, আলেম সকলের পাঠ করা জরুরী। মহান রব বইটির লেখক, প্রকাশক সহ বইয়ের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে জাযায়ে খায়ের দান করুন।
চিন্তাপরাধ নিয়ে সুন্দর এই রিভিউ লিখেছেন ভাই আতিকুর রহমান। আল্লাহ তাকে কবুল করুন। আমীন।

বইটি অনলাইনে অর্ডার করুন -
১। রকমারি - https://bit.ly/2VqfRsn
২।ওয়াফি - https://bit.ly/2Hq1ocd

Powered by Blogger.