পশ্চিমা মিডিয়া ও তথাকথিত মুক্ত চিন্তার আসল চেহারা | মিডিয়া নিয়ন্ত্রিত গাধাদের কথা । নোয়াম চমস্কির বই pdf তত্ত্ব

 নোয়াম চমস্কি এর লেকচার থেকে নেওয়া  পশ্চিমা মিডিয়া ও তথাকথিত মুক্ত চিন্তার আসল চেহারা


১৯৮৯ সালের দিকে ইসলামকে কটাক্ষ করে সালমান রুশদির ইসলাম বিদ্বেষী বই প্রকাশিত হলে ইরান তার মৃত্যুদণ্ডের জন্য ফাতওয়া জারি করে । 

বলা বাহুল্য, ইরান কখনোই পৃথিবীর মুসলমানদের প্রতিনিধিত্ব করে না । কিন্তু তাদের সেই সময়ের বিপ্লব, আমেরিকার প্রতি বিদ্বেষ ,খোমেনির জনপ্রিয়তা ইত্যাদির জন্য সে ঘোষণা বেশ আলোড়ন তুলেছিল পৃথিবী জুড়ে । 
  • নোয়াম চমস্কির বই pdf 
  • নোয়াম চমস্কির তত্ত্ব

এইসময় ইরানের প্রধানমন্ত্রী একটা প্রস্তাব দেন । তা হল রুশদির বইয়ের সব কপি পুড়িয়ে ফেলতে হবে ।

 স্বাভাবিকভাবে এই ঘোষণা ‘মুক্তমত প্রকাশের দেশ’ বলে খ্যাত আমেরিকায় ব্যাপক নিন্দার জন্ম দেয় ।মিডিয়ায় তা পাব্লিসিটি পায় , স্বাভাবিকভাবেই সেখানকার মানুষ ইরানের এইসব মানুষদেরকে ‘বর্বর’ , ‘মুক্ত মত প্রকাশের বিরোধী’ বলে বকাবকি করতে থাকে ।



আরেকটি ঘটনা । ১৯৭৪ সালের দিকের কথা । ‘মিডিয়ায় আমেরিকায় ফরেন পলিসি যেভাবে দেখানো হয়’ তা নিয়ে নোয়াম চমস্কি আর এড হারমেন এর একটা বই প্রকাশ হবার কথা । 

যারা চমস্কিকে চিনেন তারা খুব ভালো করেই জানেন তিনি পশ্চিমা দুনিয়ার আমেরিকার ফরেন পলিসির সবচেয়ে বড় সমালোচকদের একজন ।

আমেরিকার মিডিয়ার মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে তাদের দেশীয় প্রশাসনের ফরেন পলিসি হজম করানো নিয়ে তাদের দুইজনের একটা বই ‘Manufacturing Consent’(১৯৮৮) পৃথিবী বিখ্যাত ।

 তো আমেরিকার মিডিয়া ইন্ডাস্ট্রির একটা বড় অংশের দখল হল Warner Incorporation এর কাছে । এবং ১৯৭৪ সালের ওই বইটার পাবলিশারও ছিল তাদেরই সাবসিডিয়ারি একটি প্রকাশনা সংস্থা । 

বইটার ২০,০০০ কপি ছাপা হবার পর যখন প্রকাশক বইয়ের বিজ্ঞাপন তৈরি করল , সেটা Warner Inc. এর এক নির্বাহী দেখলেন এবং বেশ অসন্তুষ্ট হলেন । 

তারপর বইটার ভেতরের কন্টেন্ট দেখে আরও রেগে গেল Warner Inc. । তখন এই পাবলিশারকে মার্কেট ছাড়া করতে বইয়ের সব কপি এবং তারা এই পর্যন্ত যত বই ছাপিয়েছে সব কপি নষ্ট করে ফেলা হল। 

২০,০০০ কপি বই পোড়ান হই নি , বরং পাল্প বানিয়ে ফেলা হয়েছিল।
তো এই সংবাদ কোন কাভারেজ পায় নি ।
(খুব স্বাভাবিকভাবেই , কারণ মিডিয়ায় Warner Inc এর দাপট )। এবং জনগণের প্রতিক্রিয়া তো দূরে থাক ।

পূর্বের ঘটনার সাথে এই ঘটনার তফাৎ হল , আগেরটার বেলায় বইয়ের কপি নষ্ট করা হয় নি ,স্রেফ ঘোষণা এসেছিল এবং পরের টার বেলায় প্রকাশককে সুদ্ধ মার্কেট আউট করা হয়েছিল । আর জনতার প্রতিক্রিয়ার কথা তো বললামই ।


ঘটনাটি ১৯৮৯ সালে University of Wisconsin এ এক লেকচারে নোয়াম চমস্কি বর্ণনা করছিলেন । 

তিনি বোঝাতে চাইলেন যে, আমেরিকার জনগণ এবং তাদের অনুসারি বাকি দুনিয়ার জনগণের মাইন্ড আমেরিকার মিডিয়ার দ্বারা এমনভাবে ম্যানিপুলেটেড যে, 

কোনটার বেলায় প্রতিক্রিয়া দেখাতে হবে এবং কোনটার বেলায় দেখাতে হবে না , কোনটাকে ‘স্বাধীন মত প্রকাশে বাধা’ বলতে হবে আর কোনটাকে বলতে হবে না -তাও মিডিয়ার দ্বারা সুনিয়ন্ত্রিত ।
Rakayet Rafi
Powered by Blogger.