আরবি লেখা ছবি আর্ট | আরবি লেখা পিক পিকচার ফটো ডাউনলোড

আরবি লেখা ছবি আর্ট পিক পিকচার ফটো ডাউনলোড 







আরবি আর্ট ছবি 








আরবি লেখা ছবি ডাউনলোড 








আরো দেখুন ঃ









নিচে আরো ছবি আছে, কিন্তু সেগুলো দেখার আগে একটু মুসলিমদের অসহায় অবস্থা সম্পর্কে জানি। 

ভারতে ইসলাম বিদ্বেষী ও মুসলিম নির্যাতন 


৫ অগাস্ট রাম মন্দির নির্মাণ আরম্ভের দিবস হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছে। সব কিছু ঠিক থাকলে এই দিনে বাবরি মসজিদের ধ্বংসস্তূপে রাম মন্দির নির্মাণ কাজ শুরু হবে। ভারত সরকার এর জন্য বহু আয়োজন করেছে। একবছর পূর্বে এই ৫ অগাস্টেই ৩৭০ ধারা বাতিল করা হয়েছিল।

 কাশ্মিরের লকডাউনের ১ বছর হতে যাচ্ছে তাই কাশ্মিরে দুই দিনের কার্ফু জারী করেছে মোদী সরকার। সম্ভবত কোনো ফলস ফ্লাগের সম্ভাবনা আছে। এর মধ্যে ভারতে 'মোহরাত রাজনীতি' শুরু হয়েছে।

 হিন্দু পণ্ডিত ও কংগ্রেস পন্থিরা বলছে ৫ অগাস্টের দিন ঘোর অশুভ। আর তাই নাকি অমিত শাহ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। যাইহোক, পুরো ভারত জুড়ে নিরাপত্তা জোরদার করা হচ্ছে।


বর্তমান ভারতের অবস্থা খুবই ভয়াবহ। অর্থনীতি ধ্বসে পড়ছে, জিডিপি নেগেটিভে, বেকারত্ব বেড়েই চলছে। এখন পর্যন্ত প্রায় ১২ কোটি লোক বেকার হয়েছে। করোনার প্রকোপ বাড়ছে। 

বাড়ছে প্রতিদিন কৃষকের আত্নহত্যার সংখ্যা। অন্যদিকে চীন লাদাখ থেকে আরুনাচাল পর্যন্ত পুরো সীমান্তে সৈন্য মোতায়েন করছে। বোম্বার সহ বিভিন্ন অত্যাধুনিক ওয়েপন ডিপ্লোয় করা হচ্ছে। 

প্রতিবেশি সকল দেশ এমনকি বাংলাদেশও ভারতের কাছ থেকে পিছে হটেছে। কাশ্মিরের সকল মানুষ, সে লিবারেল হোক বা ইসলামিস্ট প্রায় সকলে ভারত বিরোধী হয়ে উঠছে।

 সর্বশেষ বর্ণবাদ ও ধর্মবাদ মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। এই সব কিছুর জন্য প্রধানত মোদী দায়ী। আর তাই আমি বলি মোদী মুসলিমের জন্য কল্যানকর। 

অস্থায়ী ভাবে মুসলিমরা ক্ষতিগ্রস্থ হলেও স্থায়ী ভাবে মোদিই মুসলিমদের ঘুম থেকে জাগিয়ে তুলতে সাহায্য করছে।


ভারতকে এমন অবস্থায় নিয়ে যাওয়ার জন্য মোদী এবং গোদি মিডিয়ার ভূমিকা অনেক। মাত্র ৬ বছরে ভারতের ঐক্যতা নষ্ট করে, সেকুলার জাতীয়তাবাদী ধারণা বাদ দিয়ে ধর্ম পরিচয়কে সামনে নিয়ে আসা হয়েছে।

 মিডিয়া এবং হুয়াটস আপ ইউনিভার্সিটি মানুষকে ৬ বছর ধরে মিসগাইড করে চলছে। মিডিয়াকে ব্যবহার করে পুরো জনগণকে কিভাবে বেওকুফ বানানো যায় এটার একটি আদর্শ উদাহরণ হল ভারত। 


৯০০+ নিউজ মিডিয়ার মধ্যে টপ ১০০ টি বিজেপি দখলে নিয়ে একই মিথ্যা বার বার প্রচার করে মানুষের মাথায় ফেইক তথ্য ঢুকিয়ে দিচ্ছে। প্রশাসনের সাধারণ বিষয় গুলো নিয়ে প্রশ্ন করার কেও নেই এখন। 

বাচ্চাদের হাতে ছোট খেলনা তুলে দিলে যেমন করে ভারত ঠিক কয়েকটি রাফেল ফাইটার পেয়ে তেমন করছিল। বেকারত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুললে বলা হয় রাফেল আসছে, শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে বললে, বলা হয় রাফেল আসছে, দলিত ও কৃষকের অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুললে মিডিয়া বলে রাফেল আসছে।


 আগে কোনো বিষয়ে সমালোচনা করলে বলা হত 'সিয়াচিন মে হামারে জাওয়ান লার রায়ে হায়'। দরিদ্র, মিসকিন, জাহিল ও নির্বোধ জনগনকে মিডিয়া এমন ভাবে ম্যানিপুলেট করেছে, প্রোপোগান্ডা চালিয়েছে যে তাদের দৈনন্দিন ইস্যু ভুলে গিয়ে তারা রাফেল নিয়ে মেতে আছে। 
এখন মেতেছে রাম মন্দির নিয়ে।


কেন ভারতের মুসলিমরা কাশ্মীরের জনগণকে সাপোর্ট করে না? কেন ভারতের মুসলিমরা ভারত জাতীয়তাবাদের গান গায়? কাশ্মিরীদের এমন প্রশ্ন করলে জবাবে তারা বলত, যখন ভারতের অন্যান্য মুসলিমরাও আমাদের মত নিপীড়িত হবে তখন তারা আমাদের কষ্ট বুঝতে পারবে। 


আজ মোদীর কারনে ভারতের মুসলিমরা তাদের আসল অবস্থান বুঝতে পেরেছে। কংগ্রেস মুসলিমদের দুধ কলা খাইয়ে পিছন থেকে ছুঁড়ি মেরে আহত করত কিন্তু মোদীর সরকার প্রকাশ্যে মুসলিমদের শত্রু হিসেবে ঘোষণা করে। 

আর তাই মোদীর আমলে মুসলিমরা জেগে উঠছে। ইসলামি আন্দোলন ভারতের রন্ধ্রে রন্ধ্রে প্রবেশ করছে।

রাম মন্দির নির্মাণ মোদীর জন্য কেবল রাজনৈতিক ইস্যু নয়, এটা হল তার এবং তার মত ডেভটেড ও কট্টরপন্থি হিন্দুদের সারাজীবনের স্বপ্ন। গান্ধী হিন্দুত্ববাদ প্রতিষ্ঠা করে নাই তাই তাকে হত্যা করা হয়েছিল। 

গান্ধীর হত্যাকারী নাটসু রাম গোডসেকে বিজেপির আইডল মনে করা হয়। গোডসেকে তারা দেশভক্ত মনে করে আর গান্ধীকে মনে করে গাদ্দার। পৃথিবীতে আর কোনো দেশের মানুষ এতটা জাহিল ও মূর্খ নয় যতটা মূর্খ হল ভারতের সাধারণ স্তরের মানুষরা। 

এদেরকে মিসগাইড করা খুব সহজ। তাই ব্রাহ্মণ সারীর কয়েক কোটি লোকেরা পুরো ভারতকে দখল করে নিয়েছে। আর এসব কিছু গাযওয়ায়ে হিন্দের প্রেক্ষাপট তৈরি করছে। আল্লাহু আলাম।
- Kaisar Ahmed 





Picture Credit: 
 abdulhak95

➤ abo_samer_3
 arabicartgallery

➤dromeraras
➤05.hat.evi
➤quranthemiracle
➤ seymacinar












আরবি লেখা পিক 2020








আরবি লেখা ফটো বাংলা











আরবি পিকচার 























Powered by Blogger.