মা | মা নিয়ে উক্তি, কবিতা, কিছু কথা, প্রবন্ধ ও মাকে নিয়ে Status

SHARE

মা | মা নিয়ে উক্তি, মা কবিতা, কিছু কথা, প্রবন্ধ রচনা

মা | মা নিয়ে উক্তি, কবিতা, কিছু কথা, প্রবন্ধ ও মাকে নিয়ে Status
মা ছেলে 



মা বা আম্মু কাকে বলে?


মা হচ্ছেন একজন পূর্ণাঙ্গ নারী, যিনি গর্ভধারণ, সন্তানের জন্ম তথা সন্তানকে বড় করে তোলেন - তিনি বাবার পাশাপাশি অভিভাবকের ভূমিকা পালনে সক্ষম ও মা হিসেবে সর্বত্র পরিচিত।
প্রকৃতিগতভাবে একজন নারী বা মহিলাই সন্তানকে জন্ম দেয়ার অধিকারীনি। গর্ভধারণের ন্যায় জটিল এবং মায়ের সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং ধর্মীয় অবস্থানে থেকে এ সংজ্ঞাটি বিশ্বজনীন গৃহীত হয়েছে। তার বিপরীত লিঙ্গ পুরুষ হচ্ছেন বাবা।

মা নিয়ে উক্তি

মা নিয়ে উক্তি

মা কে নিয়ে সেরা ১০টি উক্তি


১. আব্রাহাম লিংকন– যার মা আছে সে কখনইগরীব নয়।


২. জর্জ ওয়াশিংটন– আমার দেখা সবচেয়ে সুন্দরী মহিলা হলেন আমার মা। মায়ের কাছে আমি চিরঋণী। আমার জীবনের সমস্ত অর্জন তারই কাছ থেকে
পাওয়া নৈতিকতা, বুদ্ধিমত্তা আর শারিরীক শিক্ষার ফল।


৩. জোয়ান হেরিস— সন্তানেরা ধারালো চাকুর মত। তারা না চাইলেও মায়েদের কষ্ট দেয়।আর মায়েরা তাদের
শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত সন্তানদের সাথে লেগে থাকে।


৪. এলেন ডে জেনেরিস– -আমার বসার ঘরের দেয়ালে আমার মায়ের ছবি টাঙানো আছে, কারণ তিনিই আমার কাছে সবচেয়ে বড় আকর্ষণ।


৫. সোফিয়া লরেন— কোন একটা বিষয় মায়েদেরকে দুইবার ভাবতে হয়–একবার তার সন্তানের জন্য আরেকবার নিজের জন্য।


৬. মিশেল ওবামা–আমাদের পরিবারে মায়ের ভালোবাসা সবসময় সবচেয়ে টেকসই শক্তি। আর তার একাগ্রতা, মমতা আর বুদ্ধিমত্তাআমাদের মধ্যে দেখে আনন্দিত হই।


৭. নোরা এফ্রন–মা আমাদের সবসময় এটা বুঝাতে চাইতেন যে জীবনের চরম কষ্টের মূহুর্তগুলো তোমাদের হাসির কোন গল্পের অংশ হয়ে যাবে এক সময়।


৮. মাইকেল জ্যাকসন— আমার মা বিস্ময়কর আর আমার কাছে উৎকর্ষতার আরেক নাম।


৯. শিয়া লাবেউফ— সম্ভবত আমার দেখা সবচেয়ে আবেদনময়ী আমার মা


১০. দিয়াগো ম্যারাডোনা— আমার মা মনে করেন আমিই সেরা আর মা মনে করেন বলেই আমি সেরা হয়ে গড়ে উঠেছি।



মাকে নিয়ে Status


মাকে নিয়ে বাংলা  ফেসবুক স্ট্যাটাস 


০১. পৃথিবীতে সবাই তোমাকে ভালোবাসবে, সেই ভালোবাসার মাঝে যে কোনো প্রয়োজন লুকিয়ে থাকে। কিন্তু একজন ব্যক্তি কোনো প্রয়োজন ছাড়াই তোমাকে ভালোবাসবে সে হলো মা

০২. দুনিয়ার সব কিছুই বদলাতে পারে, কিন্তু মায়ের ভালবাসা কখনো বদলাবার নয়..!!


০৩. মায়ের কোল যে কত বড় জিনিস তা একজন যোগ্য সন্তান ছাড়া আর কেউ জানে না । শত চিন্তা আপনার মাথায়, একবার মায়ের কোলে মাথা রাখেন দেখবেন সব চিন্তা দূঢ় হয়ে যাবে । দুনিয়ার যেখানেই যান না কেন মায়ের কোলে যে শান্তি তা কোথাও খুজে পাবেন না ।


০৪. আমি বোকা হতে পারি, অনেক খারাপ ছাত্র হতে পারি, দেখতে অনেক কালো হতে পারি, কিন্তু আমার মায়ের কাছে আমিই শ্রেষ্ঠ সন্তান।


০৫. পৃথিবীর সব চেয়ে সুখ কি জান? মা-বাবার আদর সব চেয়ে কষ্ট কি জান? মা-বাবার চোখের জল. সব চেয়ে অমুল্য রতন কি জান? মা-বাবার ভালোবাসা।।।


০৬. মা মাগো মা_আমি এলাম তোমার কোলে, তোমার ছায়ায় তোমার মায়ায়‪ মানুষ ‬হব বলে।


০৭.  আমার মা যখন হাসে, তখন আমার খুব ভালো লাগে। কিন্তু যখন মা আমার কারনে হাসে, তখন আরো বেশি ভালো লাগে।



মা সম্পর্কে উক্তি


প্রচণ্ড অভাবের সংসার ছিল আমাদের। তিন বেলা ভাতই জুটত না ঠিকভাবে। কিন্তু সেই নিদারুণ অভাবকে কী করে পাশ কাটিয়ে যেতে হয়, তা আমার মায়ের কাছ থেকেই শিখেছিলাম। কখনোই মুখ ভার করে থাকতেন না মা। হাসিমুখে নীরব লড়াই চালিয়ে যেতেন অনটনের সঙ্গে। পেটে ভাত নেই, কিন্তু সত্যি কথা বলছি, মায়ের ভেতরের অমন শক্তি আমাদের মধ্যেও সঞ্চারিত হতো! উৎসাহ পেতাম জীবনযুদ্ধে টিকে থাকার। 
– সিদ্দিকুর রহমান

“মা আমাদের সর্বদা এটা বোঝায় যে আমাদের জীবনের চরম কষ্টের মুহূর্তগুলো, একসময় হাসির কোনো গল্পে পরিণত হয়ে যাবে”


“সময় থাকতে মাকে ভালোবাসুন, তাঁকে কষ্ট দেওয়া থেকে বিরত থাকুন এবং মায়ের ইচ্ছাকে পূরণ করুন”

“আমায় কাঁদতে দেখেছো তুমি, হাসতে দেখেছো আমায়, দেখেছো অসুস্থ হয়ে পড়তে, দেখেছো মন খারাপ করে শুয়ে থাকতে | প্রত্যেকটা মুহূর্ত সর্বদা পাশে থেকেছো তুমি, ধন্যবাদ মা”


মা কবিতা


“মায়ের হাতে শুকনো মুঁড়ি
হার মানে পোলাও লুচি
তোমার পায়ের ধুলো মাগো
ধূলো নয়তো হীরের কুঁচি”

- অজানা




নোলক
আল মাহমুদ

আমার মায়ের সোনার নোলক হারিয়ে গেল শেষে
হেথায় খুঁজি হোথায় খুঁজি সারা বাংলাদেশে।
নদীর কাছে গিয়েছিলাম, আছে তোমার কাছে?
হাত দিওনা আমার শরীর ভরা বোয়াল মাছে।
বললো কেঁদে তিতাস নদী হরিণ বেড়ের বাঁকে
শাদা পালক বকরা যেথায় পাখ ছড়িয়ে থাকে।
জল ছাড়িয়ে দল হারিয়ে গেলাম বনের দিক
সবুজ বনের হরিৎ টিয়ে করে রে ঝিকমিক
বনের কাছে এই মিনতি, ফিরিয়ে দেবে ভাই,
আমার মায়ের গয়না নিয়ে ঘরকে যেতে চাই।




মাতৃভক্তি
- কালিদাস

বায়েজিদ বোস্তামী- 
শৈশব হতে জননীর সেবা করিতেন দিবাযামী। 
দুপুর রাত্রে জননী জাগিয়া ডাকিলেন,'বাছাধন, 
বড়ই পিয়াস পানি দাও' বলি মুদিলেন দু'নয়ন। 
দেখিল বালক ঘরের কোণের কলসিতে নেই পানি, 
বহুদূর পথ ঝরনা হইতে কলসি ভরিয়া আনি। 
মায়ের তৃষ্ণা মিটাইবে বলি গভীর অন্ধকারে 
ছুটিয়া বাহির হইল একাকী কলসি লইয়া ঘাড়ে। 
জল ঢালি পিয়ালায় 
সুপ্তা মাতার নয়ন শিয়রে দাঁড়ায়ে রহিল ঠায়। 
ভাঙালে নিদ্রা হবে অপরাধ, কখন ভাঙিবে নিঁদ, 
সেই ভরসায় পানি হাতে খাঁড়া রহিল যে বায়েজিদ। 
পূর্ব গগন ফর্সা হইল,ডাকিয়া উঠিল পাখি, 
জননী মেলিল আঁখি। 
দেখিল শিয়রে দাঁড়ায়ে রয়েছে দশ বছরের ছেলে 
পানি হাতে কেন, বুঝিল না মাতা প্রথম নয়ন মেলে। 
সহসা পড়িল মনে, 
গভীর রাতে পিপাসায় পানি চেয়েছিল বাছাধনে। 
কহিল মা, মরি মরি! 
বাছারে আমার, পানি হাতে করে সারা রাত্রটি ধরি 
দাঁড়াইয়া আছ? ঘুমাওনি আজ?' চোখে এল জল ভরি। 
পুত্রেরে কোলে নিয়ে মা চুমিল বার বার মুখখানি। 
কহিল জননী,'নয়নের মণি, সাধারণ শিশু নও, 
খোদার দোয়ার বরকতে তুমি জগতপূজ্য হও। 
পুত্র গরবে গর্বিত বুকে,খোদা, স্মরি তব নাম, 
তোমারে আমার জীবনের এই সম্বল সঁপিলাম। 
বিফল হয়নি মায়ের আশিস, হৃদয়ের প্রার্থনা 
জগৎ-বন্দ্য জ্ঞানগুরুদের বায়েজিদ একজনা।

মা নিয়ে কবিতা


মা


যেখানেতে দেখি যাহা
মা-এর মতন আহা
একটি কথায় এত সুধা মেশা নাই,
মায়ের মতন এত
আদর সোহাগ সে তো
আর কোন খানে কেহ পাইবে না ভাই।
হেরিলে মায়ের মুখ
দূরে যায় সব দুখ,
মায়ের কোলেতে শুয়ে জুড়ায় পরান,
মায়ের শীতল কোলে
সকল যাতনা ভোলে
কত না সোহাগে মাতা বুকটি ভরান।
যখন জনন নিনু
কত অসহায় ছিনু,
কাঁদা ছাড়া নাহি জানতাম কোন কিছু,
ওঠা বসা দূরে থাক-
মুখে নাহি ছিল বাক,
চাহনি ফিরিত শুধু মা’র পিছু পিছু!
পাঠশালা হ’তে যবে
ঘরে ফিরি যাব সবে,
কত না আদরে কোলে তুলি’ নেবে মাতা,
খাবার ধরিয়া মুখে
শুধাবেন কত সুখে
‘কত আজ লেখা হলো, পড়া কত পাতা?’
পড়া লেখা ভালো হ’লে
দেখেছ সে কত ছলে
ঘরে ঘরে মা আমার কত নাম করে!
বলে, ‘মোর খোকামণি।






মা নিয়ে কিছু কথা প্রবন্ধ





হ্যাঁ, আমরা সকলেই মায়ের হাসি মুখে আমাদের দিনটি শুরু করি। আমার দিন শুরু হয়েছিল যখন আমার মা আমাকে খুব সকালে উঠেন। আমার জন্য, আমার মা এই মহাবিশ্বের ভালবাসা এবং দয়াের সর্বোত্তম উদাহরণ। তিনি আমাদের যত্ন নিতে জানেন। আমার মায়ের কঠোর পরিশ্রমী এবং নিবেদিত প্রকৃতি যেমন খুব পছন্দ হয় তখন থেকেই আমি তার ভক্ত হয়ে উঠি। আমার জীবন আমার জীবন গঠনের জন্য আমার মা অনেক ত্যাগ করেছিলেন। তিনি আমাকে অত্যন্ত ভালোবাসা এবং যত্ন সহকারে বড় করেছেন। আমি যখন একটি শব্দও উচ্চারণ করতে পারি না তখনও সে আমাকে বুঝতে পারত। মা সত্যিকারের ভালবাসার আর এক নাম। একজন মা তার সন্তানকে নিঃস্বার্থভাবে ভালোবাসেন এবং এর বিনিময়ে কোনও কিছুর প্রত্যাশা বা দাবি করেন না। আমার মা যাকে আমি আম্মা বলে থাকি সে আমাদের বাড়িটিকে ঘরে পরিণত করে।
আমার মা আমাদের বাড়ির ব্যস্ততম ব্যক্তি। তিনি সূর্য ওঠার আগে অনেকটা উঠে তার দায়িত্ব পালন শুরু করেন। তিনি আমাদের জন্য খাবার রান্না করেন, আমাদের যত্ন নেন, শপিং করেন এবং আমাদের ভবিষ্যতেরও পরিকল্পনা করেন। আমাদের পরিবারে, আমার মা পরিকল্পনা করছেন কীভাবে ব্যয় করবেন এবং কীভাবে ভবিষ্যতের জন্য সংরক্ষণ করবেন। আমার মা আমার প্রথম শিক্ষক ছিল। তিনি আমার নৈতিক চরিত্র গঠনেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। তিনি আমাদের স্বাস্থ্যের যত্ন নিতেও ভোলেন না। যখনই আমাদের পরিবারের কোনও সদস্য অসুস্থ হয়ে পড়েন, আমার মা নিদ্রাহীন রাত কাটান এবং তাঁর পাশে বসে তাঁর যত্ন নেন /সারা রাত তার জন্য। আমার মা তার দায়িত্ব থেকে কখনই ক্লান্ত হন না। আমার বাবা যখনই কোনও গুরুতর সিদ্ধান্ত নিতে কোনও অসুবিধা পান তখনও তার উপর নির্ভর করেন।
মা শব্দটি আবেগ এবং ভালবাসায় পূর্ণ। এই মিষ্টি শব্দের মান সত্যই সেই শিশুরা অনুভব করেছে যাদের 'মা' বলে ডাকার কেউ নেই। সুতরাং যার পাশে তার / তার মা আছেন সে গর্বিত বোধ করা উচিত। কিন্তু আজকের বিশ্বে কিছু দুষ্ট শিশুরা বৃদ্ধ হওয়ার সাথে সাথে তাদের মাকে বোঝা হিসাবে বিবেচনা করে। যে ব্যক্তি তার সমস্ত সন্তানদের জন্য ব্যয় করে সে তার জীবনের শেষ মুহুর্তে তাদের সন্তানের জন্য বোঝা হয়ে যায় become কিছু স্বার্থপর শিশু এমনকি তার মাকে বৃদ্ধাশ্রমে প্রেরণে বিরত করে না। এটি সত্যই লজ্জাজনক ও দুর্ভাগ্যজনক ঘটনাও। সরকারের উচিত এই ঘটনাগুলিতে নজর রাখা এবং সেই নির্লজ্জ শিশুদের বিচারিক হেফাজতে নেওয়া উচিত।
আমি সারাক্ষণ ছায়ার মতো মায়ের সাথে দাঁড়াতে চাই। আমি জানি আজ আমি কেবল তার কারণেই এখানে আছি। তাই আমি সারা জীবন মায়ের সেবা করতে চাই। আমি আমার ক্যারিয়ারটিও তৈরি করতে চাই যাতে আমার মা আমাকে নিয়ে গর্ব বোধ করেন।
ইংরেজিতে আমার মায়ের উপর অনুচ্ছেদে মা 
কোনও শব্দ নয়, এটি একটি আবেগ। আমার মা আমার রোল মডেল এবং তিনি বিশ্বের সেরা মা। প্রত্যেকেই তাই মনে করে কারণ এই পৃথিবীতে তাঁর সন্তানের প্রতি মায়ের ভালবাসার মতো আশ্চর্যজনক কিছুই নেই। যে ব্যক্তি মায়ের ভালবাসা উপভোগ করে সে নিজেকে বিশ্বের সবচেয়ে ভাগ্যবান ব্যক্তি হিসাবে বিবেচনা করে। কোনও মায়ের ভালবাসা কখনই কথায় বা ক্রিয়াকলাপে প্রকাশ করা যায় না; বরং এটি আমাদের হৃদয়ের গভীরে অনুভূত হতে পারে।
কোনও পরিবারে নেতৃত্বের গুণাবলী মায়ের দ্বারা বজায় থাকে কারণ তিনি ঠিক জানেন কখন চাপ দিতে হবে এবং কখন যেতে হবে।
আমার মা সবার মতো আমার অনুপ্রেরণা। তিনিই সেই মহিলা, যার আমি সবচেয়ে বেশি প্রশংসা করি এবং তিনি সারা জীবন আমাকে প্রভাবিত করেছেন। প্রেম এবং যত্নের ক্ষেত্রে, কেউ মায়ের স্থান নিতে পারে না। ছোটবেলায় আমাদের প্রাথমিক বিদ্যালয়টি আমাদের বাড়িতে আমাদের মায়ের নির্দেশনায় শুরু হয়েছিল বলে জানা যায়। আমরা আমাদের মাকে আমাদের প্রথম শিক্ষক হিসাবে আমাদের প্রথম সেরা বন্ধু হিসাবে ডাকতে পারি।
আমার মা খুব সকালে ঘুম থেকে উঠেছিলেন। আমাদের সবার জন্য প্রাতঃরাশ প্রস্তুত ও পরিবেশন করার পরে, তিনি আমাদের স্কুলে নামাতেন। আবার সন্ধ্যায়, তিনি স্কুল থেকে আমাদের বাছতে, আমাদের অ্যাসাইনমেন্টগুলি করতে সহায়তা করতে এবং রাতের খাবার প্রস্তুত করতে এসেছিলেন। তিনি তার অসুস্থতায়ও আমাদের জন্য ডিনার প্রস্তুত করতে জেগেছিলেন। তার প্রতিদিনের বাড়ির কাজগুলি ছাড়াও; আমার মা হলেন তিনি, যিনি পরিবারের কোনও সদস্য অসুস্থ বোধ করলে ঘুমন্ত রাত কাটান। তিনি আমাদের স্বাস্থ্য, শিক্ষা, চরিত্র, সুখ ইত্যাদি সম্পর্কে সর্বদা উদ্বিগ্ন থাকেন তিনি আমাদের সুখে খুশি হন এবং আমাদের দুঃখে দুঃখ বোধ করেন। তদুপরি, তিনি আমাদের জীবনে সর্বদা সঠিক জিনিসগুলি করতে এবং সঠিক পথ বেছে নিতে গাইড করে। একজন মা প্রকৃতির মতো, যিনি সর্বদা আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করার চেষ্টা করেন এবং এর বিনিময়ে কখনই কোনও কিছু ফিরিয়ে নেন না।
(এনবি - আমার মায়ের উপর এই নিবন্ধটি তৈরি করা হয়েছে যাতে শিক্ষার্থীরা কীভাবে আমার মায়ের উপর একটি রচনা লিখতে পারে তার একটি ধারণা দেওয়ার জন্য। শিক্ষার্থীরা এই শব্দটির সীমাটির উপর নির্ভর করে আমার মায়ের প্রবন্ধে আরও বেশি বক্তব্য যুক্ত করতে পারেন।)
চূড়ান্ত শব্দ: - সুতরাং অবশেষে আমরা এই পোস্টটির সমাপ্তি অংশে পৌঁছেছি 'আমার মাতৃ প্রবন্ধ'। যেমনটি আমরা আগে এই পোস্টে উল্লেখ করেছি আমরা কেবলমাত্র শিক্ষার্থীদের ধারণা দেওয়ার জন্য আমার মায়ের উপর রচনাটি তৈরি করেছি। এই প্রবন্ধগুলি নেভিগেট করার পরে তারা জানতে পারবে কীভাবে আমার মায়ের উপর একটি রচনা লিখতে হয়। তদুপরি, আমার মায়ের এই প্রবন্ধগুলি এমনভাবে রচনা করা হয়েছে যাতে কোনও শিক্ষার্থী সহজেই আমার মায়ের উপর অনুচ্ছেদ বা বিষয়টির একটি নিবন্ধ লিখতে পারেন। আমার মায়ের উপর বক্তৃতা দেওয়ার জন্য, আপনি উপরের কোনও রচনা চয়ন করতে পারেন এবং আমার মায়ের ভাষণটিও প্রস্তুত করতে পারেন।


মা সন্তানের প্রথম শব্দ। আমার হিসাবে, আমার মা আমার জন্য  সবচেয়ে মূল্যবান উপহার। কথায় কথায় তাকে বর্ণনা করা আমার পক্ষে খুব চ্যালেঞ্জিং কাজ। প্রতিটি সন্তানের ক্ষেত্রে মা হলেন সবচেয়ে যত্নশীল এবং প্রেমময় ব্যক্তি যাঁরা জীবনে দেখা করেছেন। আমার মাও সেই সমস্ত গুণাবলীর অধিকারী যা একটি মা রয়েছে। আমাদের পরিবারে আমাদের 6 জন সদস্য রয়েছে; আমার বাবা-মা, আমার দাদা-দাদি এবং আমার ছোট বোন এবং আমি। তবে আমার মা হলেন একমাত্র সদস্য যার জন্য আমরা আমাদের বাড়িটিকে "একটি বাড়ি" বলতে পারি। আমার মা প্রথম দিকে রাইজার। সে ভোরবেলায় উঠে তার শিডিউল শুরু করে। তিনি আমাদের সঠিক যত্ন নেন এবং আমাদের বিভিন্ন সুস্বাদু খাবার খাওয়ান। আমার মা আমাদের পরিবারের প্রতিটি সদস্যের পছন্দ এবং অপছন্দ জানেন। এমনকি তিনি সতর্ক রয়েছেন এবং আমার দাদা-দাদিদের ওষুধ সময়মতো ছিল কিনা তা যাচাই করে।
আমি আমার মায়ের নৈতিক শিক্ষাগুলি নিয়ে বড় হয়েছি। তিনি আমার জীবনের প্রতিটি পদক্ষেপে আমাকে গাইড করেন। তিনি আমার অনুভূতিগুলি বোঝেন এবং আমার খারাপ সময়ে আমাকে সমর্থন করেন এবং আমার ভাল মুহুর্তগুলিতে আমাকে অনুপ্রাণিত করেন। আমার মা আমাকে শৃঙ্খলাবদ্ধ, সময়নিষ্ঠ এবং বিশ্বাসযোগ্য ব্যক্তি হতে শেখায়। আমার মা আমাদের পরিবারের জন্য একটি গাছ যা আমাদের ছায়া দেয়। যদিও তাকে প্রচুর কাজ পরিচালনা করতে হয় তিনি সর্বদা শান্ত এবং শীতল থাকেন। এমনকি কঠিন পরিস্থিতিতেও তিনি তার স্বভাব এবং ধৈর্য হারাবেন না। আমার মা এবং আমার মধ্যে ভালবাসার একটি বিশেষ বন্ধন রয়েছে এবং আমি সর্বদা Godশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি আমার মাকে চিরকালের জন্য সুস্থ ও সুস্থ রাখুন





আমার মা আমার নায়ক কারণ তিনিই একমাত্র ব্যক্তি, আমি ছাড়া কখনো বাঁচতে পারি না। তিনি একমাত্র ব্যক্তি যার প্রতি আমি কৃতজ্ঞতা বান্ডেল প্রদান করি। আমি সর্বদা তাকে ধন্যবাদ জানাই এবং অত্যধিক প্রশংসা করি। তিনি আমার নায়ক কারণ আমার যখন সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন তখন তিনি আমাকে শক্তি দিয়েছিলেন।
মা আমাকে কেবল লালন-পালন করেছেন এবং যত্ন করেছেন কিন্তু জীবনের কোনও অসুবিধার মুখোমুখি হয়ে সর্বদা আমার পাশে ছিলেন। নায়ক তিনি হলেন তিনি যিনি সাহসী এবং শক্তিশালী। এটি সত্যই আমার মাকে সংজ্ঞায়িত করেছে যিনি সাহসী এবং শক্তিশালী। তার নিঃস্বার্থ ভালবাসা আমার জীবন। আমি তার মতো নিঃস্বার্থ কাউকে দেখিনি।
তিনি সেরা জীবন দেওয়ার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করেছিলেন। তার পুরো জীবনকালে তিনি আমার জন্য ভেবেছিলেন her তাঁর অগাধ নিঃস্বার্থ ভালবাসা প্রকাশ করার মতো কথার আমার অভাব আছে। গত 20 বছর থেকে তিনি আমার পাশে ছিলেন। সে কখনও কোনও স্বার্থপর উদ্দেশ্য দেখায় নি এবং আমাকে কখনও নামতে দেয় না।
আমার মা আমাকে অন্যদের সাহায্য করতে এবং প্রবীণদের সম্মান করতে শিখিয়েছেন। তিনি আমার জন্য ভাল কাজ করার অনুপ্রেরণা। তিনি অত্যন্ত বিনয়ী, নম্র, নম্র এবং প্রকৃতির স্বভাবের।
আমি যতটুকু বা আশাবাদী, তার সবই আমি মায়ের কাছে .ণী। এটা ঠিকই বলা হয়েছে যে "মায়ের ভালবাসা এমন একটি জ্বালানী যা একজন সাধারণ মানুষকে অসম্ভবকে সক্ষম করে তোলে"। আমার বয়স যত বেশি হয়, ততই আমি বুঝতে পারি যে আমার মা আমার সেরা বন্ধু যেটি আমার কখনও হয় নি।
একক শব্দের মা সমস্ত মানবকে সম্ভবত ভালোবাসার প্রস্তাব দিতে পারে। একজন লেখক বলেছিলেন যে "কখনও কখনও মাতৃত্বের শক্তি প্রাকৃতিক নিয়মের চেয়েও বেশি হয়"। আমার মা আমার সত্যিকারের নায়ক কারণ তিনি আমার মিথ্যাগুলি ক্ষমা করেছেন, এমনকি যদি আমার ভুল হয় তবে তিনি উষ্ণ হাসি দেন।
আমার মা আমার চাহিদা পূরণের জন্য সর্বদা নিজের প্রয়োজন ত্যাগ করেছেন। যখনই আমি হতাশ এবং হতাশাবোধ বোধ করতাম তখন আমার মা আমার আত্মা উত্থিত করে আমাকে খুশি করে তোলে।
রুডইয়ার্ড কিপলিং সঠিকভাবে বলেছেন যে "everywhereশ্বর সর্বত্র হতে পারেন না এবং তাই তিনি মাতৃগণকে পরিণত করেছিলেন"। সবকিছু মাতৃত্বের শুরু এবং শেষ হয়। আমি সবসময় আমার মায়ের কোলে শান্তি এবং কোমলতা খুঁজে পেয়েছি। তার কোলে শব্দ নিদ্রার সবচেয়ে আরামদায়ক জায়গা।
আমার মায়ের গুদ আমার জন্য স্বর্গ। একজন ইংরেজী লেখক স্যামুয়েল টেলর কলরিজ একবার ঘোষণা করেছিলেন যে "মায়ের ভালবাসা হৃৎপিণ্ড এবং স্বর্গীয় পিতার মধ্যে নরম আলোর পর্দা"।
SHARE

Author: verified_user