ইউটিউব থেকে আয় ও কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন সাথে ভিউ , সাবস্ক্রাইব বাড়ানোর উপায়


ইউটিউব কি এবং ইউটিউব চ্যানেল | ইউটিউব থেকে আয় ও কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন সাথে ভিউ , সাবস্ক্রাইব বাড়ানোর উপায়

"পোস্ট এর মূল অংশ নিচের দিকে, তাই সময় বেশি খরচ করতে না চাইলে প্রথম অংশ না পরে নিচের দিকের অংশ পড়া শুরু করুন, সময় বাচবে।

আর একদম নতুন হলে পুরোটা পরুন কাজে লাগতে পারে"


ইউটিউব কি

আসুন জেনে নিই  ইউটিউব কি  ইউটিউব (ইংরেজি: YouTube) একটি ভিডিও আদান-প্রদান করার ওয়েবসাইট। ওয়েব ২.০ এর অন্যতম কর্ণধার ইউটিউব বর্তমান ইন্টারনেট জগতের একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইট যা এর সদস্যদের ভিডিও আপলোড, দর্শন আর আদান-প্রদানের সুবিধা দান করে আসছে। এই সাইটটিতে আরো আছে ভিডিও পর্যালোচনা, অভিমত প্রদান সহ নানা প্রয়োজনীয় সুবিধা।
ফেব্রুয়ারি ২০০৫ সালে প্রতিষ্ঠিত এই প্রতিষ্ঠানটির পেছনে ছিলেন মূলত পেপ্যাল প্রতিষ্ঠানের তিন প্রাক্তন চাকুরীজীবি, চ্যড হারলি, স্টিভ চ্যন আর বাংলাদেশী বংশদ্ভুত জাওয়েদ করিম।

কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন

 "গুগল একাউন্ট খুলুন,   ইউটিউব এ যান এবং Create Channel থেকে  ইউটিউব চ্যানেল তৈরি  করুন"

 ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায়

ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার জন্য আপনাকে তো আগে চ্যানেল  খুলতে হবে, চ্যানেল দাড় করাতে হবে সাবস্ক্রাইবার বাড়াতে হবে এবং এডসেন্স পেতে হবে। তারপর  ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার চিন্তা করতে হবে। ইউটিউব আগের মত সহজ নেই ।
  1. ইউটিউব থেকে আয় করবেন যেভাবে 
  2. ইউটিউব থেকে আয় ২০২০
  3.  ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায়
  4.  ইউটিউব মনিটাইজেশন ২০২০


 ইউটিউব প্রতি ১০০০ ভিউতে কত টাকা দেয়?

"একটা জিনিস বুঝুন ইউটিউব ভিউর জন্য টাকা দেয় না। ইউটিউব যে অ্যাড দেখায় তার জন্য টাকা দেয়। এই অ্যাড দেখানোরও কোন স্থির নিয়ম নেই।"



 ইউটিউব কিভাবে টাকা দেয়?

"ব্যাংক এর মাধ্যমে। কার্ডের মাধ্যমে।
কেনো টাকা দেই?
আপনার চানেলে তাদের এড দেখিয়ে টাকা নেই তারই একটা অংশ আপনাকে দেই।"


 ইউটিউবে কত ভিউতে কত টাকা ?

-" ঐ  একটা জিনিস বুঝুন ইউটিউব ভিউর জন্য টাকা দেয় না। ইউটিউব যে অ্যাড দেখায় তার জন্য টাকা দেয়। এই অ্যাড দেখানোরও কোন স্থির নিয়ম নেই।"


  ইউটিউব এ ভিউ ও সাবস্ক্রাইব  বাড়ানোর ১২ টি উপায়(২০২১)

ইউটিউব এ ভিউ ও সাবস্ক্রাইব  বাড়রানকরার ১২ টি উপায়(২০২০)

১। ভালো কন্টেন্ট ঃ  আপনি যতই টেকনিক ইউজ করেন না  কেনো আপনার ভিডিও এর মান যদি ভালো না হয় তাহলে ভিউ/  সাবস্ক্রাইবার পাবেন না। তাই দর্শক আনতে এবং তাদের ধরে রাখতে ভালো মানের ভিডিও দিতেই হবে।

২ঃ ভিডিও লেন্থ ঃ সাধারনত ৪/৫ মিনিটের ভিডিও আমরা বেশি দেখি। এর চেয়ে বেশি হলে ১০/১৫ মিনিট। এর বেশি লম্বা ভিডিও কম মানুষ এ দেখে। যেখানে আপনি ক্লিক করেই অন্য ভিডিও তে চলে জেতে পারেন সেখানে আপনি ১৫ মিনিট কেন বসে থাকবেন যদি ভিডিও টা অসাধারণ না হয়?


৩। আপলোডের সময়ঃ সব দিন সব সময় আপলোড দিলে প্রথমে টা হিট হবে না। বাংলাদেশে যদি দুপুর ২/৩ তাই আপলোড দেন তাহলে টা তখন কমই দেখা হবে কিন্তু যদি সকাল ১০/১১ বা রাত ৮ টা টা থেকে ১১ তার মধ্যে আপলোড দেন তাহলে টা অনেক মানুষের কাছে যাবার সম্ভাবনা বেশি।

  • নতুন ইউটিউব চ্যানেল 
  • ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয় করার উপায়
  •  ইউটিউব চ্যানেল সেটিং 
  • ইউটিউব চ্যানেল বিক্রি
  •  মোবাইল দিয়ে ইউটিউব চ্যানেল খোলা
  •  কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন মোবাইলে  
  • ইউটিউব চ্যানেলের সুন্দর নাম
  •  ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব 


৪। কমেন্ট ঃ এই ট্রিক্স টা কিছুটা Spammy টাইপ এর । ধরে নিন আপনার চ্যানেল বাংলা ভাষার এবং আপনার নিস ফটোগ্রাফি । এবার এই নিসে টপ ১০/১২ টা চ্যানেল এর লিস্ট করুন তাদের সাবস্ক্রাইব করুন, ওরা যখন ই ভিডিও আপলোড দিবে চেষ্টা করবেন সাথে সাথে ৩/৪ লাইন এর ভাল একটা কমেন্ট করার। 

যাতে আপনার কমেন্ট টা টপে থাকে। যেহেতু টপ চ্যানেল সেহেতু এই ভিডিও টি অনেক ভিউ পাবে আর তারা কমেন্ট পড়তে আসলে আপনার কমেন্ট ই উপরে পাবে সেহেতু অনেকে আপ্নার চ্যানেল এ  ঘুরতে আসবে এবং অনেকের ভাল লাগার ফলে সাবস্ক্রাইব ও করবে, ইনশা আল্লাহ্‌ । কমেন্ট রিলেটেড রাখবেন, হুদাই তেল মারা টাইপ এর সুন্দর ভাল এরকম কমেন্ট করবেন না। এবার অন্য ২/৩ টা চ্যানেল থেকে আপনি অই কমেন্ট এ লাইক দিন। সহমত  টাইপ এর রিপ্লায় দিতে পারেন (!)



৫। থাম্বনেল ঃ ভিজিটর রা প্রথমে থাম্বনেল দেখে পরে ভিডিও। প্রথম দেখাতেই যদি মনে নেগেটিভ ধারনা আসে তাহলে আর ভিডিও দেখা হয় না। তাই প্রথম দেখাতেই যাতে ভালো লাগে এমন থাম্বনেল দিন। থাম্বনেল এর জন্য কালার চয়েসে খেল রাখুন। ভালো থাম্বনেল তৈরির কিছু মাধ্যম দিচ্ছি

1. Pixel Lab
2. Photoshop
3.Canva
4.Pic Monkey


৬ । অডিও ঃ হারাম মিউজিক থেকে দূরে থাকুন। মিউজিক ছাড়াও শুধু ভয়েস দিয়েও ভালো ভিডিও বানানো যাই। শুধু শুধু পাপ করার দরকার কি?

ধীরে ধীরে সাবলিল ভাবে ভয়েস দিন। আপনি আপনার মতই থাকুন, আপনাকে সোহাগ ভাই এর মত হতেই হবে ব্যাপারটা এমন না। আপনি স্বাভাবিক  থাকিন সাবলীল থাকুন আর এভাবেই কথা বলুন।



৭। অন্য কে হেল্প করুন ঃ  পেজ / গ্রুপ/ কমেন্টে অনেকেই অনেক সমস্যার কথা বলে, তাদের হেল্প করুন। যত পারেন তাদের সাথে সম্পর্ক তৈরি করুন। তারাই আপনাকে খুজে নিবে।




৮। Sponsore : আপনি যে নিসে চ্যানেল করেছেন সেই একই নিসের মাঝারি মানের চ্যানেল এর ভিডিও স্পন্সর করুন যাতে ওরা আপনার চ্যানেল প্রমট করে (শুরুতে দাঁড়ানোর জন্য )

৯। social Share:  ভিডিও আপলোড দেওয়ার সাথে সাথে টপ ১০ টা সোশ্যাল  মিডিয়াতে শেয়ার করে দিন। এটা Youtube SEO তে হেল্প করবে।

১০। ব্লগিং ঃ আপনার টেক্সট স্ক্রিপ্ট ব্লগ এ শেয়ার করুন with ভিডিও। এটাও seo তে হেল্প করবে।

১১। ইউটিউব চ্যানেলের নাম ঃ  ইউটিউব চ্যানেলের জন্য সুন্দর একটি নাম দিন।

১২। শেষ কথা যা শুরুতে বলা উচিত ছিলো টা হলো Keyword Research ঠিক মত করে Title, Tag দিবেন।


Powered by Blogger.