নারীদের মনে সেক্স জাগার মুহূর্ত ও যৌন মিলনের সময় নারীরা ব্যাথা পায় কেনো ?

নারীদের মনে সেক্স জাগে যে মুহূর্তগুলোতে এবং  যৌন মিলনের সময় নারীরা কি কি কারণে ব্যাথা পায় 

বাংলা সেক্স এডুকেশন এবং স্বাস্থ্য নিয়ে ৫টি পোস্ট এক সাথে। নারীদের মনে সেক্স জাগে যে মুহূর্তগুলোতে, যৌন মিলনে মধুর আনন্দ লাভ করতে কিছু ব্যায়াম, যৌন মিলনের সময় নারীরা কি কি কারণে ব্যাথা পায়। মাত্র ২০ মিনিটে নাকের পাশের ব্ল্যাকহেড দূর করার পদ্ধতি
আপনারা হয়তো অনেকে জানেন না যে নারীদের মনে কখন সেক্স জাগে। আজ আমরা আলোচনা করব এমন কিছু বিশেষ মুহূর্ত নিয়ে যে সময়গুলোতে নারীদের মনে সেক্স জাগে.

নারীদের মনে কামনা জাগে যে মুহূর্তগুলোতে

১। বৃষ্টিভেজা দিনে সেক্স
নারীদের মন বড়ই রোমান্স।  বৃষ্টির দিনে হঠাৎ করে প্রেমিকার দেখা করে আসুন। মেঘলা এই দিনে প্রেমিকার মন এমনিতেই আপনার জন্য অপেক্ষায় থাকবে। তেমনি মুহূর্তে কাছে টানতেই পারেন প্রেমিকাকে । বৃষ্টিভেজা পরিবেশ আপনাদের মিলন আরও বেশি আনন্দে ভরিয়ে তুলবে।


২।  সিনেমার সেক্স ( পশ্চিমাদের কালচার)
আমাদের দেশের অনেক নারী সিনেমা দেখে। ফলে তারা অনেকে সিনেমা ভালোভাবে করেন। জানবেন, সিনেমার কোন রোমান্টিক সিন দেখার পর প্রেমিকার মনে মারাত্মক যৌনমিলনের ইচ্ছা জাগে।
৩। মদ্যপানের পর সেক্স ( আমাদের জন্য হারাম)
অনেক মদ্যপানের পর অধিকাংশ নারীই যৌনমিলনের জন্য উদগ্রীব হয়ে ওঠেন। প্রেমিকার ক্ষেত্রেও তেমনটা ঘটলে তাঁকে বেশি প্রশ্রয় দেবেন না। কারণ নেশার ঘোরে ভুল পদক্ষেপ নেওয়ার সম্ভাবনা বেশী তৈরি হয়।

বাংলা সেক্স এডুকেশন

৪। দূরের সেক্স ( স্বাভাবিক)
আপনি থাকেন এক জেলায়, আপনার বউ থাকেন অন্য এক জেলায়। কিন্তু মাসে  দিন কয়েক দেখা হয় যায়। স্বাভাবিকভাবেই সে সময় আপনার স্ত্রীর মানসিক ও শারীরিক চাহিদা তুঙ্গে থাকার কথা। তাই সময়টাকে অবহেলায় নষ্ট করবেন না। উপভোগ করুন দারুন ভাবে।
৫।  ঈর্ষান্বিত সেক্স ( শিউর না)
কোনো নারীকে নিয়ে অতিরিক্ত ঈর্ষা হলে, স্ত্রীর মারাত্মক রকম তেজি হয়ে উঠতে পারেন বিছানায়। অপর নারীর উপর রাগ অথবা ঈর্ষা থেকে যৌনমিলনের ইচ্ছা জাগতে পারে তাঁর মনে। কী ভাবছেন, জেলাস করবেন  স্ত্রী কে? তাকে দেখিয়ে অন্য কোনও নারীর সঙ্গে ফ্লার্ট করবেন? 
ভুলেও এই কাজ করবেন না। পশ্চিমারা এইসব বালছাল টিপস অনুসরন করে আর নিজেদের সংসার ভাঙ্গে ডাল পানির মত।
৬।রান্না ঘরের সেক্স ( ওয়াও) হিহিহি
যদি রান্না করার মুহূর্তে  স্ত্রীর কোমল ত্বকে স্বামীর আলতো ছোঁয়া লাগে,  স্ত্রীর সহজে  উত্তেজনা ধরে রাখতে পারেন না। ব্যাপারটা চেষ্টা করে দেখতে পারেন। অধিকাংশ নারীর এই একটি সুপ্ত রোমান্স আছে।
৭। শান্ত মনের সেক্স
মন শান্ত, পরিবেশও শান্ত। এমন পরিস্থিতিতেও নারীর শরীর যৌন মিলনের জন্য দারুণভাবে তৈরি থাকে। কেননা, সেই সময় তাদের মাথায় আর অন্য কোনও দুশ্চিন্তা থাকে না। ফলে এই পরিবেশে সুপার হট সেক্স চলতে পারেন।

৮। পিরিয়েডের ২ সপ্তাহ পরের সেক্স

পিরিয়েড শেষ হওয়ার ২ সপ্তাহ পর নারীর শরীর যৌনতা ও গর্ভধারণের জন্য পুরোপুরি তৈরি থাকে। সে সময় মনের ইচ্ছেটা ও প্রখর থাকে।
৯। আপনার আর আপনার স্ত্রীর গোপন ইচ্ছা।
এইটা আপনারা নিজেরাই বের করেন কার কি ইচ্ছা। 

১০। দরজা বন্ধ করে সেক্স

বেডরুমের দরজা বন্ধ করা মাত্রই কোনও পুরুষ যদি ওয়াইল্ড হয়ে ওঠেন, সেই ওয়াইল্ডনেসে গা ভাসিয়ে দিতে চান অনেক নারী।

যৌন মিলনে মধুর আনন্দ 

কিছু গোপন কৌশলের দরকার আছে যৌনমিলনের দারুন কিছু অনুভূতি উপভোগ করতে। যেগুলি সাধারণত অনেকেরই কাছে অজানা। আর তা কোনভাবে জানতেও পারছেন না। আর এই আনন্দের গোপন রহস্য লুকিয়ে আছে কিছু ব্যায়ামের মধ্যে ৷ আর কিছু সহজ ব্যায়ামের কৌশলে রাতে নিজেকে একদম অন্যরকম ভাবে খুঁজে পেতে পারেন যে কেউ। দেখতে লাগবে যেমন আকর্ষণীয় তেমনি লাবণ্য। সকাল হোক কিংবা রাত সুবিধা মত সময়ে এই সব ব্যায়াম করতে পারবেন প্রত্যেককে।

সেক্সে আনন্দ লাভ করতে প্রয়োজন কিছু ব্যায়াম

orange citrus

১। ব্যাঙের আকারে শুয়ে
মেঝেতে উবুর হয়ে শুয়ে কোমরের নিচের দিকে দুই টা টাওয়েল মুড়ে রাখতে হবে। এরপর পা ও বাহু দু’টোকে ৯০ ডিগ্রি ভাঁজ করে ঠিক ব্যাঙের মত উবুর শুয়ে থাকতে হবে ২০ থেকে ২৫ সেকেন্ড। এই ব্যায়াম ৫ থেকে ৬ বার করুন।
২। বড় রাবারের বলের সাহায্যে
একটা বড় রাবারের বলকে দেওয়ালে রেখে তার পিছনের দিকে ঠেস দিয়ে দাঁড়াতে হবে। এরপর হাঁটু দুটোকে ভাঁজ করে আর তাতে হাতগুলো সোজা করে রাখতে হবে কিছু সময়ের জন্য। শুধু খেয়াল মনে রাখতে হবে, যেন বলটা পিছনের দিক থেকে সরিয়ে না যায়। এরপর হাল্কা উঠবস শুরু করতে হবে। এই ব্যায়ামটিও ৫ থেকে ৬ বার করুন।


৩। হাত আর পায়ের উপর ভর করে
উবুর হয়ে শুয়ে হাত আর পায়ের ওপর ভর করে দাঁড়াতে হবে। এরপর যে একটা পাকে ভাঁজ করে রেখে অন্য পাটিকে একদম সোজা করে রাখতে হবে কিছু সময়ের জন্য। এরপর সেই পা ৯০ ডিগ্রি ঘোড়াতে হবে। ১০ সেকেন্ডের নিতে হবে বিশ্রাম ৷ দিনে ৫ থেকে ৬ বার করতে হবে এই ব্যায়ামটি।

যৌন মিলনের সময় নারীরা কি কি কারণে ব্যাথা পায়

যোনি
  1. প্রথম মিলনে ব্যথা
  2.  সহবাসের সময় জ্বালাপোড়া 
  3. মিলনের সময় জ্বালাপোড়া 
  4. শারীরিক মিলন পদ্ধতি
  5.  সহবাসের পর জ্বালা-পোড়া হওয়া কিসের লক্ষণ?
  6.  দীর্ঘ সময় মিলন করার পদ্ধতি
  7.  প্রথম মিলনে রক্তক্ষরন 
  8. সহবাসের সময় নারীর করণীয়

নারীরা যৌন মিলনের সময় যে শুধু তৃপ্তি পায় এমন টা কিন্তু না। বিভিন্ন কারণে নারীরা যৌন মিলনের সময় ব্যাথা পেতে পারে। আবার যৌন মিলনে নারীরা যে ব্যাথা পাবে এটা আবার সব ক্ষেত্রে ও সঠিক না। এমন কিছু বিশেষ বিশেষ ঘটনা ও পরিস্থিতিতে নারীরা যৌন মিলনে ব্যথা পেয়ে থাকেন।যার কারণে যৌন মিলন তাঁদের কাছে কষ্ট দায়ক বা পীড়াদায়ক হয়ে থাকে। নিম্নে নারীর যৌন মিলন কি কি কারণে ব্যথাদায়ক হতে পারে তা উল্লেখ করা হলো। যেমনঃ

১. সর্বপ্রথম সেক্স

যদি কোন নারী সর্বপ্রথম কোন পুরুষ এর সাথে sex বা যৌন মিলন করে থাকে সেটা স্বভাবিকভাবেই একটু ব্যাথা দায়ক বা পীড়াদায়ক হবেই। এই ব্যাথাটা সাময়িক সময়ের জন্য। পরবর্তীতে যৌন মিলনের সময় এমন আর না হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে । কারণ প্রথম যৌন মিলনের সময় নারীর হাইমেন ছিঁড়ে যাওয়ার জন্য এমনটি হয়ে থাকে ।

. অল্প কামরস


 পুরুষ এর সাথে নারীর যৌন মিলনের সময় যোনিতে কামরস বের হয়, যেটা পুরুষাঙ্গের চলনকে সহজ করে। কোন কারণে যদি নারীর যনীতে পিচ্ছিলকারক পানি না আসে বা কামরস বের না হয়, এমন অবস্থায় যৌন মিলনে নারী ব্যাথা পেয়ে থাকে ।

৩. মাসিক বা পিরিয়ড


 নারীর মাসিক বা পিরিয়ড বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর যৌন মিলনের সময় নারীরা ব্যাথ পেতে পারে।

৪। যদি নারীর যোনীর আকার থেকে পুরুষাঙ্গ বড় কিংবা মোটা হয়, তখন যৌন মিলনে নারী ব্যাথা অনুভব করে।
৫। মাসিক বা পিরিয়ড চলার সময় নারী এমনিই অনেকটা অসুস্থ্য থাকে। তলপেটে অনেকের অনেক বেশী ব্যাথা হয়। এই সময় যদি যৌন মিলন হয় তবে অনেক নারী আছে যারা ব্যাথা অনুভব করে।
যৌনমিলন নারী ও পুরুষ উভয়ের জন্য একটি আনন্দময় অভিজ্ঞতা, সব থেকে কাছে আসার উপায়। কোন সমস্যা না থাকলে যৌন মিলনে ব্যথা পাবার ঘটনা সাধারনত ঘটে না। এটা স্বাভাবিক যে প্রথম মিলনের সময়েই একটু ব্যথার অনুভূতি হবে। এটা বাদ দিলে সুস্থ ও সাধারণ যৌন মিলনে ব্যাথা পাওয়ার ভয়ের কিছুই নেই। যৌনমিলনের ফলে নারী ও পুরুষ উভয়ে অসুস্থ কম হয়।
All Credit  Goes To : Banglahealthguide.com
Powered by Blogger.